আবদুলের ওপর আক্রমণকারী ‘সেই বন্য হাতির’ মৃত্যু

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

শেরপুর: জেলার  শ্রীবরদীতে মৃত অবস্থায় একটি বন্য হাতি পাওয়া গেছে।

শনিবার সকালে উপজেলার রানী শিমুল ইউনিয়নের হালুয়াহাটি গ্রামের পাহাড়ের ঢালে হাতিটিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।

তবে কী কারণে বন্যহাতিটির মৃত্যু হয়েছে তার সঠিক কারণ জানা যায়নি।

এদিকে মৃত হাতিটিকে নিহত কৃষক আবদুলের হাইয়ের (৬৫) ওপর আক্রমণকারী হিসেবে দাবি করেছেন স্থানীয়রা।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে একদল বন্য হাতি পাহাড় থেকে খাদ্যের সন্ধানে এসে ফসলের ক্ষতি করলে বাধা দেয় কৃষক আবদুল হাই। এসময় একটি হাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

সকাল ১০টার দিকে বালিজুড়ি রেঞ্জের কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম বলেন, মৃত হাতিটির ময়নাতদন্তের জন্য ভেটেনারি সার্জনকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়ায় প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। তবে বৃষ্টির কারণে ঘটনাস্থলে যেতে বিলম্ব হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বলা যাবে কীভাবে বন্যহাতিটি মারা গেছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে একদল বন্যহাতি পাহাড় থেকে খাদ্যের সন্ধানে নেমে এসে হালুয়াহাটি গ্রামের বিভিন্ন ঘর-বাড়িতে আক্রমণ চালায়। এসময় কৃষক আব্দুল হাই বন্য হাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

একই সময়ে হাতির আক্রমণে আঙ্গুরী বেগম নামে এক নারী এবং মাখন (৭) নামে এক কন্যাশিশু আহত হয়। এ ঘটনার একদিন পর একই গ্রামে এক বন্য হাতির মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »