লালমনিরহাটে কলার ভেলা ডুবে একজনের মৃত্যু, নিখোঁজ-৩

Feature Image

লালমনিরহাট থেকে জিন্নাতুল ইসলাম জিন্নাঃ  লালমনিরহাটে ধরলা নদীর বন্যার পানিতে কলার ভেলা ডুবে ৪ জন নিখোঁজ হয়েছে। এদের মধ্যে নাদিম (৪) নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার হয়েছে। রোববার বিকালে সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নের পুর্ব বরুয়া গ্রামে এ দুঘর্টনা ঘটেছে।
মৃত নাদিম কুলাঘাট ইউনিয়নের পুর্ব বরুয়া গ্রামের মোজাম উদ্দিন ওরফে রবিউল ইসলামের পুত্র।

 

স্থানীয়রা জানান, কয়েকদিনের ভারি বৃষ্টি ও উজানের ঢলে কুলাঘাট ইউনিয়নের ধরলা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় লোকালয়ে পানি প্রবেশ করে বন্যা দেখা দিয়েছে। ফলে অনেকেই বসত বাড়ি ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে যাচ্ছিল। রোববার বিকালে ওই এলাকার আব্দুল হামিদ ও তার স্ত্রী আছমা বেগম, মোজাম উদ্দিন ওরফে রবিউল ও তার ছেলে নাদিমসহ ৪ জন মিলে একটি কলার ভেলায় করে নিরাপদ স্থানে যাচ্ছিলো। এ সময় ধরলা নদীর পানির প্রচন্ড ¯্রােতে কলার ভেলা পানিতে ডুবে গেলে ৪ জনেই নিখোঁজ হয়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় ৩শ গজ দুরে শিশু নাদিমের লাশ উদ্ধার করা হলেও বাকি ৩ জনের এখন পর্যন্ত কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি ।

 

কুলাঘাট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ইদ্রিস আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিখোঁজ ৪ জনের মধ্যে শিশু নাদিমের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি তিন জনকে খুজতে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগীতা চাওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে লালমনিরহাট ফায়ার সার্ভিসের একটি দল নিখোঁজ তিনকে উদ্ধারের জন্য উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন।

আরো খবর »