প্রতিদিনের যে ১২টি অভ্যাস আমাদের বদলানো দরকার

Feature Image

নিউজ ডেস্ক : আমরা প্রতিদিন কতো কাজই না করি! কিছু কিছু কাজ প্রতিদিনই করতে হয়। আর সে সব কাজ করতে গিয়ে আমরা প্রায়শই ভুল করি; মানে, ভুলভাবে সে কাজগুলো করি। সম্প্রতি স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইটে তেমনি ১২টি ভুল অভ্যাসের কথা তুলে ধরা হয়েছে; বলা হয়েছে, এ অভ্যাসগুলো বদলানো দরকার।

ভুল অভ্যাস-১: শুধু বুক থেকে শ্বাস ছাড়া

প্রতিদিন আমরা কমবেশি ১৭ হাজার বার শ্বাস নিই এবং শ্বাস ছাড়ি। একটু খেয়াল করলে দেখবেন, আমরা নাক দিয়ে শ্বাস নেওয়ার পর, তা আবার নাক দিয়ে ছাড়ি। এ ধরনের শ্বাস ছাড়াকে সাধারণত বলা হয়, বুক থেকে শ্বাস ছাড়া। কিন্তু মাঝে মাঝে নাক দিয়ে বড় করে শ্বাস নিয়ে তা মুখ দিয়ে ছাড়া ভালো। সেক্ষেত্রে শ্বাস ছাড়ার সময় নাক বন্ধ রাখতে হয়। এভাবে শ্বাস ছাড়াকে বলা হয় পেট থেকে শ্বাস ছাড়া। এটি আমাদের ক্লান্তি দূর করতে, রক্তচাপ ও ব্লাড-সুগার কমিয়ে দিতে এবং ধৈর্য্যশক্তি বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

ভুল অভ্যাস-২: লম্বা সময় ধরে গোসল করা

আমাদের মধ্যে অনেকেই লম্বা সময় ধরে গোসল করে থাকেন। এটা ঠিক নয়। বিশেষ করে শীতকালে গোসলের সময় ১০ মিনিটের বেশি হওয়া উচিত নয়। বেশি সময় ধরে গোসল করলে আমাদের ত্বক আরও শুষ্ক হবে এবং মাথা হবে গরম। আরেকটি কথা, মাথার চুল সপ্তাহে তিনবার ধোয়াই যথেষ্ট।

ভুল অভ্যাস-৩: শরীররচর্চার আগে অতিরিক্ত প্রস্তুতি নেওয়া

শরীরচর্চার আগে আমরা সাধারণত প্রস্তুতিমূলক কিছু কাজ করে থাকি। যেমন, হাত-পা নাড়াচাড়া করা, শরীরের আড়মোড়া ভাঙা ইত্যাদি। কিন্তু এই প্রস্তুতিমূলক কাজে ৫ মিনিটের বেশি সময় নেওয়া উচিত নয়। এতে আমাদের পেশীতে ব্যথা হতে পারে। অবশ্য শীতকালে শরীরচর্চা শুরুর আগে ১০ থেকে ১৫ মিনিট সময় ধরে শরীর গরম করে নেওয়া যেতে পারে।

ভুল অভ্যাস ৪: দ্রুত খাওয়া

আপনার বন্ধুদের মধ্যে এমন কেউ কি আছেন, যিনি খুব দ্রুত খান? আমিও কিন্তু এমন কয়েকজনকে জানি, যারা খুব দ্রুত খেয়ে থাকেন। কিন্তু এটি সঠিক নয়। বেশি দ্রুত খেলে, হজমের সমস্যা হয়। এ ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ হচ্ছে- সকাল, দুপুর বা রাত যখনই আপনি খেতে বসবেন, প্রতিবার খাওয়ার জন্য অন্তত ১৫ মিনিট সময় ব্যয় করুন। অর্থাৎ ধীরে ধীরে খান।

ভুল অভ্যাস-৫: টয়লেটে বেশি সময় ব্যয় করা

অনেকেই টয়লেটে অধিক সময় ব্যয় করেন। আসলে, টয়লেটে বেশি সময় ধরে থাকায় কোনো কল্যাণ নেই। ঠিক যতটুকু সময় প্রয়োজন, তারচেয়ে বেশি সময় ধরে টয়লেটে থাকা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। অনেকে টয়লেটে বসে ধূমপান করেন। ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক। আর এই কাজটি টয়লেটে বসে করা আরও খারাপ।

ভুল অভ্যাস-৬: দ্রুত হাত ধোয়া

সাম্প্রতিক এক জরিপে দেখা গেছে, জরিপে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে মাত্র ৫ শতাংশ মানুষ হাত ধোয়ার সঠিক পদ্ধতি জানেন না। আসলে হাতে অন্তত ২০ সেকেন্ড ধরে সাবান মাখানো দরকার। তারপর পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। অনেকে হাত ধোয়ার পর ড্র্রায়ার ব্যবহার করেন। এটা ঠিক নয়। পরিস্কার তোয়ালে বা টিস্যু দিয়ে হাত মুছে নেওয়াই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

ভুল অভ্যাস-৭: ওয়াশিং মেশিনে আন্ডারওয়্যার ধোয়া

ওয়াশিং মেশিনে আন্ডারওয়্যার ধোয়া ভাল না। বিশেষজ্ঞরা হাতে আন্ডারওয়্যার ধোয়ার কথা বলেন। সাধারণত আন্ডারওয়্যার নরম জাতীয় কাপড় দিয়ে তৈরি হয়। ওয়াশিং মেশিনে এ ধরনের কাপড় ধুলে তা নষ্ট হতে পারে। তা ছাড়া, হাতে ধুলে কাপড় যত পরিস্কার হবে, মেশিন অনেক ক্ষেত্রেই ততটা পরিস্কার করে কাপড় ধুতে পারে না। যেহেতু আন্ডারওয়্যার সরাসরি আমাদের ত্বকের সাথে লেগে থাকে, তাই এটি বেশি পরিস্কার ও সাবানমুক্ত হওয়া প্রয়োজন। অতএব, আন্ডারওয়্যার হাত দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন।

ভুল অভ্যাস-৮: আবর্জনা বিভক্ত না করা

আমরা প্রতিদিন যেসব আবর্জনা ফেলে দিই, তার ৫০ শতাংশই রিসাইকেল করা যায়। তাই রিসাইকেলযোগ্য আবর্জনার সাথে রিসাইকেল-অযোগ্য আবর্জনা মেলানো উচিত নয়। এ বিষয়ে সচেতনতা পরিবেশ সুরক্ষায় প্রয়োজনীয়।

ভুল অভ্যাস-৯: শোয়ার আগে মোবাইল ফোনে কথা বলা বা গেমস খেলা

আপনার কি এ ধরণের অভ্যাস আছে? থাকলে তা আজই ছেড়ে দিন। এ অভ্যাস আমাদের স্মৃতিশক্তি, লেখার সামর্থ্য, সৃষ্টিশীলতা এবং আত্মনিয়ন্ত্রণ ক্ষমতার ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। এ অভ্যাস আমাদের ঘুমের ওপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

ভুল অভ্যাস-১০: সকালে দাঁড়ি কামানো বা শেভ করা

স্বাভাবিকভাবেই পুরুষদেরই এ ভুল অভ্যাসটি আছে। আপনিও কি সকালে দাঁড়ি কামান? আসলে রাতে শোয়ার আগে শেভ করা ভালো। সারাদিনের কাজের পর আমাদের ত্বকে অনেক ময়লা জমে। রাতে বাসায় ফিরে ভালো করে মুখ ধুয়ে আরাম করে দাঁড়ি কাটুন এবং সকালে চাঙ্গা একটা অনুভূতি নিয়ে অফিসে যান। রাতে শেভ করে রাখলে, সকালে তাড়াহুড়া করে শেভ করার ঝামেলাও পোহাতে হয় না। অনেকে সকালে তাড়াহুড়া করে শেভ করতে গিয়ে গাল কেটে ফেলেন। তো, পুরুষ বন্ধুরা, আজ থেকে আর সকালে শেভ নয়।

ভুল অভ্যাস-১১: খাওয়া শেষ করার সাথে সাথে দাঁত মাজা

প্রতিদিন নিয়মিতভাবে অবশ্যই দাঁত মাজতে হবে। তবে, খাওয়ার পরপরই দাঁত মাজা ভাল নয়। কতক্ষণ পরে দাঁত মাজবেন? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, খাওয়ার অন্তত ৩০ মিনিট পর দাঁত মাজা ভালো। তারা অধিক সময় ধরে দাঁত মাজতেও বারণ করে থাকেন। দাঁত মাজার জন্য দুই মিনিটই যথেষ্ট। আর দাঁত মাজতে ব্যবহার করুন নরম ব্রাশ।

ভুল অভ্যাস-১২: সঠিক পদ্ধতিতে না বসা

আমাদের অনেককেই বসে বসে কাজ করতে হয়। বিশেষ করে যারা অফিস-আদালতে কাজ করেন, তাদেরকে। তাই বসার সঠিক নিয়ম জানা দরকার। অনেকেই সঠিক নিয়মে বসেন না। তাই তারা নানান ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভোগেন; বিশেষ করে ভোগেন স্পাইনাল কর্ডের সমস্যায়। বসার সময় মেরুদন্ড সোজা রাখুন এবং পা দুটো মাটিতে রাখুন আরামের ভঙ্গিতে। এমনভাবে বসুন যাতে কম্পিউটার থেকে আপনার দূরত্ব অন্তত এক হাত পরিমাণ হয়। আপনি জানেন কি, যারা সঠিক পদ্ধতিতে বসে কাজ করে না তাদের ডায়াবিটিস, হৃদরোগ এবং রক্তনালীর রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে? অতএব, আজ থেকে সঠিক নিয়মে বসে কাজ করার অভ্যাস করুন।

আরো খবর »