মেয়েরা যে মারাত্মক ভুলগুলো করে

Feature Image

সম্পর্কে ভাঙা-গড়া থাকতেই পারে। বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর যদি সেটা সামনের দিয়ে এগিয়ে নেয়া সম্ভব না হয় তাহলে বিয়ের সম্পর্ক অনেকেই ভেঙে ফেলেন। জীবনটাকে সুন্দর ভাবে এগিয়ে নেয়ার জন্য এতো বড় সিদ্ধান্ত নিতে হয় অনেককেই। কিন্তু বিয়ের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর মানসিক ভাবে দূর্বল হয়ে পড়েন নারী-পুরুষ দুজনেই।

বিশেষ করে নারীরা বিয়ের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পরে হুট করে আবেগের বর্শবর্তী হয়ে কিছু ভুল করে ফেলেন। এই ভুল গুলোর কারণে পরবর্তীতে পস্তাতে হয় অনেক নারীকেই। জেনে নিন ৫টি ভুল সম্পর্কে যেগুলো ডিভোর্সের পর অধিকাংশ নারীই করে থাকেন।

মানসিক ভাবে একেবারেই ভেঙে পড়া
ডিভোর্সের পর অনেক নারীই মানসিক ভাবে একেবারেই ভেঙে পড়েন। জীবনটা এখানেই শেষ হয়ে গিয়েছে ভেবে কান্নাকাটি করে বাঁচার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন অনেকেই। কেউ কেউ আবার আত্মহত্যার মত ভুল সিদ্ধান্তও নিয়ে ফেলেন যা একেবারেই উচিত নয়।

প্রতিশোধ নেয়ার মনোভাব
ডিভোর্সের পরে অনেক নারী প্রতিশোধ নেয়ার কথা ভাবেন। কিছুটা হিংস্র হয়ে ওঠেন কেউ কেউ। বিশেষ করে স্বামীর প্রতারণার কারণে যারা সংসার ভাঙতে বাধ্য হয়েছেন তাঁরা প্রতিশোধ পরায়ণ হয়ে ওঠেন। অনেক সময়ে খুনের মত মারাত্মক ঘটনাও ঘটিয়ে ফেলেন কেউ কেউ।

ফ্লার্টি আচরণ করা
ডিভোর্সের পরে একাকীত্বের কারণে কেউ কেউ ফ্লার্টি আচরণ শুরু করেন। একাকীত্ব দূর করার জন্য আশেপাশের পুরুষদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে ফ্লার্টি আচরণ করা শুরু করেন অনেকেই। এতে আশে পাশের পুরুষদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেন ঠিকই, কিন্তু সমাজে নানান রকমের কানাঘুষা শুরু হয়ে যায় যা পরবর্তীতে ভীষণ মানসিক অশান্তির কারণ হয়ে দাড়ায়।

অনৈতিক শারীরিক সম্পর্কে জড়ানো
বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর কিছু নারী অনৈতিক শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। অল্প পরিচিত পুরুষের সাথে কিংবা সাময়িক প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে সহজেই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত করে ফেলেন নিজেকে অনেক নারীই। বিষয়টির ভালো-মন্দ বিবেচনা না করে এধরণের সম্পর্কে জড়িয়ে যাওয়ার ফলে নানান রকম প্রতারণার শিকার হতে হয় অনেককেই।

হুট করে প্রেমের সম্পর্ক গড়া
একটি সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর একাকীত্ব দূর করার জন্য এবং ভবিষ্যতের চিন্তা করে অনেকেই আরেকটি প্রেমের সম্পর্কে জড়ানোর জন্য ব্যাকুল হয়ে ওঠেন। ফলে হুট করে বিশ্বাস করে চিন্তা ভাবনা না করেই প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে যান অনেকেই। হুট করে জড়ানো এসব সম্পর্ক অধিকাংশ সময়েই টেকে না। ফলে সম্পর্কের প্রতি অবিশ্বাস ও অনাস্থা আরো বেড়ে যায়।

আরো খবর »