রংপুরে দুই শিশুর মৃত্যু ৫ জেলার রেল যোগাযোগ বন্ধ

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

রংপুর: টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে রংপুরে তিস্তাঘাটসহ বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। পানির তীব্র স্রোতে গঙ্গাচড়া উপজেলার আলমার বাজারে পানি পড়ে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া কাউনিয়া উপজেলায় রেল লাইনের স্পিলিফার পানিতে ধসে যাওয়ায় সোমবার সকাল থেকে রংপুরের সঙ্গে ৫ জেলার রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

গেলো ৪ দিনে তিস্তার অব্যাহত পানি বৃদ্ধির ফলে গঙ্গাচড়া, কাউনিয়া, পীরগাছা ও বদরগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা তলিয়ে গেছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় লক্ষাধিক মানুষ বিশেষ করে গঙ্গাচড়া উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ৪০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

তিস্তা নদীর পানি গঙ্গাচড়া আর কাউনিয়া পয়েন্টে বিপদ সীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গঙ্গাচড়া উপজেলার সালাপাক ও বাজবল্লভ বেড়িবাঁধ ভেঙে পাকাসড়কসহ তলিয়ে গেছে অনেক গ্রাম।

সরেজমিনে দেখা গেছে, হঠাৎ পানি বৃদ্ধির কারণে গবাদি পশুপাখি নিয়ে দিশেহারা গ্রামবাসী। তলিয়ে গেছে কয়েক হাজার হেক্টর আবাদি জমি ও ধান ক্ষেত।

অপরদিকে বন্যাদুর্গত এলাকায় পানিবন্দিদের উদ্ধারে স্পিড বোড দিয়ে রোববার থেকে সেনাবাহিনী উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছেন। ইতিমধ্যে এসব এলাকায় দেখা দিয়েছে শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকট।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »