৩২ নম্বর ঘিরে হামলার পরিকল্পনা ছিল নিহত ‘জঙ্গি’র

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: রাজধানীর পান্থপথের হোটেল ওলিও’তে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানের সময় নিহত ‘জঙ্গি’ আত্মঘাতী হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এছাড়া সেখানে অবস্থান নেয়া জঙ্গির ধানমন্ডিতে হামলার পরিকল্পনা ছিল বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ‘অপারেশন অগাস্ট বাইট’ শেষে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) এ কে এম শহীদুল হক এ কথা বলেন।

তিনি জানান, এই জঙ্গিরা ধানমন্ডিতে হামলার পরিকল্পণা নিয়ে এখানে অবস্থান করছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের সে পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিয়েছে।

আইজিপি বলেন, নিহত জঙ্গির নাম সাইফুল ইসলাম। তার বাড়ি খুলনার ডুমুরিয়ায়। সে খুলনা বিএল কলেজের শিক্ষার্থী ছিল। এক সময় ছাত্রশিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিল।

মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে পান্থপথে হোটেল ওলিও’তে জঙ্গি সদস্যদের অবস্থানের নিশ্চিত হয়ে সেখানে ‘অপারেশন আগস্ট বাইট’ পরিচালনা করে আইনশৃংখলা বাহিনী।

অভিযানে অংশ নেয় পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট, সোয়াত ও সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটের সদস্যরা।

অভিযানের এক পর্যায়ে হোটেলের ৩০১ নম্বর কক্ষে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। এসময় গোলাগুলির শব্দও শুনা যায়। পরে ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে অভিযান সমাপ্তি ঘোষণা করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এর আগে সোমবার দিনগত রাত ৩টার দিকে জঙ্গিদের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর ওই হোটেলটির চার পাশ ঘিরে রাখে আইনশৃংখলা বাহিনী।

সকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খান কামাল বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের হোটেল ওলিওতে জঙ্গি অবস্থানের কথা নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, জঙ্গি সন্দেহে ঘিরে রাখা ওই ভবনে অস্ত্র ও সরঞ্জাম থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলে সোয়াটসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা রয়েছেন।।

এছাড়া পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের একজন কর্মকর্তা জানান, ওই হোটেলের একটি কক্ষে একজন জঙ্গির অবস্থানের তথ্য তাদের কাছে রয়েছে। সেখানে অস্ত্র ও বিস্ফোরকও রয়েছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »