ঈশ্বরদীতে ডিপ্লোমা কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন’র জাতীয় শোক দিবস পালিত

Feature Image

উপজেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঈশ্বরদী (পাবনা) থেকে সেলিম আহমেদ: ডিপ্লোমা কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ ঈশ্বরদী উপজেলা শাখার আয়োজনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস বর্ণাঢ্য আয়োজনে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ঈশ্বরদীতে পালিত হয়েছে। উপজেলা উদ্যান নার্সারী মিলনায়তনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ঈশ্বরদী উপজেলা উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রশিদের সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, ডিপ্লোমা কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ ঈশ্বরদী উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা কেএম সাইফুদ্দিন ইয়াহিয়া বকুল, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা সেলিম হোসেন, মতিয়ার রহমান, শফিকুল ইসলাম, মনিরুল ইসলাম, শুকুর মাহমুদ, শাহনাজ পারভিন ও মোঃ আলিউজ্জামান জিয়া। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন উপ-সহকারি উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা এখলাছুর রহমান।

বক্তারা বলেন, পাকবাহিনী ও তাদের দোসরদের কাছ থেকে এই দেশকে পরাধিন মুক্ত করতে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধিনতার ঘোষনা দেন। বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে এদেশের অপামর জনসাধারন মায়ের ভাষা রক্ষায় মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়। ভারত থেকে প্রশিক্ষন নিয়ে এসে দির্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর পাকসেনাদের আত্মসমর্পনে বিজয় নিশ্চিত হয়। এদেশের হাজারো নারীর সম্ভ্রম ও ইজ্জত এবং ৩০ লক্ষ শহিদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে বিজয় এসেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু  সোনার বাংলা হিসেবে এদেশকে গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন। বিপথগামী পথভ্রষ্ট কিছু সেনা কর্মকর্তা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করে। এমনকি তারা শিশু রাসেলকেও হত্যা করতে দ্বিধা বোধ করেনি। বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার শুরু হয়ে ইতোমধ্যে জড়িত কয়েকজনকে ফাঁসিতে ঝুলানো হয়েছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »