অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চেয়েছেন গণমাধ্যম প্রতিনিধিরা

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে সংলাপ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আজ বুধবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে নির্বাচন কমিশনের সম্মেলন কক্ষে এ সংলাপ শুরু হয়। আগামীকাল বৃহস্পতিবারও এ সংলাপ হবে।

আজ সংলাপ শেষে বেরিয়ে এসে গণমাধ্যমকর্মীদের অনেকেই বলেছেন, তাঁরা আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ যাতে নিশ্চিত করা হয়, সেই বিষয়টির প্রতিই জোর দিয়েছেন।

সংলাপে সভাপতিত্ব করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ কে এম নূরুল হুদা। এ ছাড়া চার নির্বাচন কমিশনার উপস্থিত ছিলেন। আজ ৩৪ জন গণমাধ্যমকর্মী ও সাংবাদিক নেতা সংলাপে অংশ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রিত হয়েছিলেন। তার মধ্যে ২২ জন অংশ নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

আমন্ত্রিতদের মধ্যে যুগান্তরের সাইফুল আলম, মানবজমিনের মতিউর রহমান চৌধুরী, প্রথম আলোর আনিসুল হক ও সোহরাব হাসান, ভোরের কাগজের শ্যামল দত্ত, বাংলাদেশ প্রতিদিনের নঈম নিজাম, বিএফইউজের একাংশের সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংলাপ শেষে দুপুরের বিরতি দিয়ে বেলা ৩টায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ ব্যাপারে ব্রিফ করবেন।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামীকালের সংলাপের জন্য আমন্ত্রিত হয়েছেন ৩৭ জন।

সংলাপে কমিশন প্রণীত নির্বাচনী কর্মপরিকল্পনা বা রোডম্যাপ উপস্থাপন করে এ বিষয়ে গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বদের মতামত নেওয়া হবে। তাঁদের পরামর্শ ও মতামতের ওপর ভিত্তি করে কমিশন আগামী সংসদ নির্বাচনের জন্য তাদের কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করবে। নির্বাচনী কর্মপরিকল্পনা বা রোডম্যাপের আলোকেই সংলাপের এজেন্ডা বা কার্যপত্র তৈরি করা হয়েছে।

সংলাপে নির্বাচনী আইন ও বিধিমালা সংশোধন, সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণ আইন যুগোপযোগী করা, নির্ভুল ভোটার তালিকা প্রণয়নে পরামর্শ, ভোটকেন্দ্র স্থাপন সংক্রান্ত কার্যক্রম যুগোপযোগী করা বিষয়ে পরামর্শ, নতুন রাজনৈতিক দল নিবন্ধন এবং নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল নিরীক্ষা সংক্রান্ত প্রস্তাবনাসহ সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সক্ষমতা বৃদ্ধির বিষয়ে মতামত গ্রহণ সংলাপের এজেন্ডায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »