কুমারখালীর ছয়টি বিদ্যালয় ও গড়াই ইকো পার্ক পরিদর্শন করলেন বিভাগীয় কমিশনার আব্দুস সামাদ

Feature Image

কুষ্টিয়া:  কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার ৬টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে শিক্ষার মান্নোয়নে সিসিক্যামেরা সহ ই-মনিটরিং কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করলেন খুলনা বিভাগের কমিশনার মো: আব্দুস সামাদ।এসময় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক অফিসার মো:সিরাজুল ইলামের সঞ্চালনায় বিভাগীয় কমিশনার বলেন, রাষ্ট্রোন্নয়নে শিক্ষার বিকল্প হতে পারেনা। সেকারণে শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে সরকার। আর শিক্ষার মূল স্তম্ভ হচ্ছে প্রাথমিক স্তর।

পরে গড়াই নদীর তীরে নির্মিত গড়াই ইকো পার্ক পরিদর্শনকালে বিভাগীয় কমিশনার মো: আব্দুস সামাদ পরিদর্শন করেন , পরিদর্শন করলে তিনি বলেন সংষ্কৃতির নগরী কুমারখালী। নানাকারণে এই নগরীর গুরুত্ব ও ঐতিহ্য অনেক। আমাদের নৈমিত্তিক কার্যকমের বাইরে যে বিনোদন একটা জনগুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার সেটি আমাদের অনেকের অজানা। এই পার্কে সবশ্রেণী-পেশা-বয়সের মানুষ বিনোদনও বিশ্রামের জন্য আসতে পারবে ও উপভোগ করছে নদীর অপরূপ সৌন্দয্য।

এই ইকো পার্কটি আরো দৃষ্টিনন্দন করতে হবে। এ ব্যাপারে আমার সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে। জেলা প্রশাসক মো: জহির রায়হান বলেন, মানুষের মেধা ও মনের সুস্থিরতা বিনোদন ও বিশ্রাম জরুরী। আর সে বিনোদন হতে হবে নির্মল ও নিরাপদ। গড়াই নদীর তীরে গড়ে ওঠা এই ইকো পার্ক এর পরিবেশ ও নিরাপত্তা আরো সুন্দর করলে দর্শনার্থীরা দিনদিন বৃদ্ধি পাবে এবং এই অঞ্চলের মানুষের মনস্তাত্তিক ভাবনারও উন্মেশ ঘটবে।
ইকো পার্ক পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন কুমারখালী উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান, কুমারখালী পৌরসভার মেয়র সামছুজ্জামান অরুন, কুমারখালী উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো:শাহীনুজ্জামান, কুমারখালী এমএন পাইলট হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মো: শহীদুল ইসলাম, কুমারখালী পাবলিক লাইব্রেরীর সম্পাদক মমতাজ বেগম,কুমারখালী থানার অফিস ইনচার্য আব্দুল খালেক, সদকী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ মহিলা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক শামিমা পারভিন রোজী, কুমারখালী পৌরসভার কাউন্সিলর মো: রফিক, কাউন্সিলর মাহাবুবুল আলম বাবু, কাউন্সিলর আনিসুর রহমান আনিস, কাউন্সিলর তুহিন সেখ, নাট্যকার লিটন আব্বাস, সাংবাদিক আরকে জামান রিপন, আব্দুস সালাম অন্তর ও দীপু মালিক,সমাজসেবক আব্দুল মালেক প্রমুখ।

আরো খবর »