ইসিকে আস্থা অর্জনের তাগিদ সাংবাদিকদের

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: নির্বাচন কমিশনকে রাজনৈতিক দলগুলোর আস্থা অর্জনের তাগিদ দিয়েছেন গণমাধ্যম প্রতিনিধিরা। তারা বলেছেন, আগামী নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ করতে হলে প্রথমেই নির্বাচন কমিশনকে সব রাজনৈতিক দলের আস্থা অর্জন করতে হবে।

বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভবনে টেলিভিশন, অনলাইন ও রেডিও’র বার্তা প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে বসে ইসি।

বৈঠক শেষে গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের অনেকেই সংলাপে এমন মত দিয়েছেন বলে সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন তারা।

বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা সভাপতিত্ব করেন। এছাড়া চার নির্বাচন কমিশনারসহ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বিভিন্ন স্তর থেকে মতামত গ্রহণের অংশ হিসেবে গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের সঙ্গে ইসির দ্বিতীয় দিনের এই বৈঠক হয়।

বৈঠকে গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরা বলেন, বার বার আলোচনার মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলোকে আস্থায় নিতে হবে ইসিকে। এছাড়া প্রশাসনিক অখণ্ডতা বজায় রেখে সংসদীয় আসনের সীমানা নির্ধারণের কথা বলেছেন সাংবাদিকরা।

গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের কেউ কেউ ‘না’ ভোটের বিধান চালুর আহ্বান জানান। এছাড়াও ভোট কারচুপি, জালভোট ঠেকাতে ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের মাধ্যমে নজরদারির পরামর্শ দেন অনেকে।

এর আগে বুধবার প্রিন্ট মিডিয়ার (সংবাদপত্র) সম্পাদক ও জ্যেষ্ঠ সাংবাকিদের সঙ্গে বৈঠক করেন নির্বাচন কমিশন। আজ টেলিভিশন, অনলাইন ও রেডিও’র জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের সঙ্গে সংলাপে বসলেন ইসি।

বুধবারের বৈঠকে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ চেয়েছেন গণমাধ্যম প্রতিনিধিরা। তারা নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে ইসির সাংবিধানিক ক্ষমতা প্রয়োগের উপর জোর দেন। এছাড়া নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের পক্ষে ও বিপক্ষে মত দেন কেউ কেউ।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রোডম্যাপ, আইন সংস্কার, সীমানা নির্ধারণসহ বিভিন্ন বিষয়ে মত নেয়ার জন্য ধারাবাহিক এ সংলাপের আয়োজন করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, বুধবার সংলাপে ৩৬ জন সিনিয়র সাংবাদিককে আমন্ত্রণ জানানো হয়। ২৬ জন অংশ নিলেও বাকি ১০ জনের মধ্যে কেউ অসুস্থ, কেউ বিদেশে থাকায় আসতে পারেননি।

আজ ইলেকট্রুনিক ও অনলাইন নিউজ পোর্টালের সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে সংলাপ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে অংশ নিতে ৩৪ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

সাংবাদিকের সঙ্গে বৈঠকের পর আগামী ২৪ আগস্ট থেকে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৈঠক শুরু করবে ইসি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »