জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

জামালপুর: যমুনার পানি কমতে শুরু করায় জামালপুরের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তবে বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে যমুনার পানি এখনো বিপদসীমার ৭৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

উজানে যমুনার পানি কমতে থাকায় জামালপুরের ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ, মাদারগঞ্জ উপজেলার বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও ভাটিতে ব্রহ্মপুত্র, ঝিনাইসহ শাখা নদীর পানি ছড়িয়ে পড়ায় মেলান্দহ, সরিষাবাড়ি, বকশীগঞ্জ ও জামালপুর সদরের বিস্তীর্ণ এলাকার বাড়িঘর তলিয়ে আছে বন্যার পানিতে।

টানা এক সপ্তাহের বন্যায় মানুষের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে। খাবার ও গো-খাদ্যের সঙ্কট তীব্র হয়ে উঠেছে। নিজেদের ঘরে খাবার নেই তার ওপর গো-খাদ্য জোটানো কঠিন হয়ে পড়েছে বানভাসি মানুষগুলোর।

জেলা প্রশাসনের হিসেবেই এ বছর বন্যায় ৬৮টি ইউনিয়নের মাঝে ৫৮টি ইউনিয়ন এবং ৮টি পৌরসভার ৫৮৩টি গ্রাম বন্যাকবলিত হয়েছে।

পানিবন্দি হয়েছে ৮ লাখ ৮৭ হাজার ৭৪২ জন। পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে প্রায় ৫০ হাজার হেক্টর ফসলি জমি। বন্ধ রয়েছে ১১০১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত ১ হাজার ৪৩৮ মেট্রিক টন চাল এবং নগদ ৪৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

জামালপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. রাসেল সাবরিন জানিয়েছেন, ত্রাণের পাশাপাশি আজ থেকে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে হাতে তৈরি শুকনা রুটি ও গুড় বিতরণ শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় ৬৫৫ মেট্রিক টন চাল ও ১৫ লাখ ২৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »