অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বুড়িমারীর সাথে রেল যোগাযোগ বন্ধ

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

লালমনিরহাট থেকে জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না: প্রবল বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার মেডিকেল মোড় রেলগেটের পাশে রেল লাইনের নিচে প্রায় একশ গজ জায়গার মাটি সরে গিয়ে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে সেখানে রেল লাইনটি ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে। আর এতে করে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য সারা দেশের সাথে বুড়িমারীর স্থল বন্দরের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

লালমনিরহাট রেলওয়ে সুত্র জানায়, গত রোববার লালমনিরহাটে ভয়াবহ বন্যায় লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেল পথের হাতীবান্ধা মেডিকেল মোড় এলাকায় লাইনের নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়। ফলে লাইনের নিচের মাটি সরে গিয়ে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে গত ৭ দিন ধরে পাটগ্রাম বুড়িমারী স্থল বন্দর রুটে সব ধরনের ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

তবে কবে নাগাদ রেল যোগাযোগ সচল হবে তা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকায় সাধারণ মানুষের পাশাপাশি চরম দুর্ভোগে পরেছেন হজ যাত্রীরাও। গত ১৪ আগস্ট সোমবার থেকে শনিবার পর্যন্ত সরকারী কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গ ভাঙ্গনস্থল পরিদর্শন করেন।

বুড়িমারী স্থল বন্দরের সিএন্ডএফ এজেন্ট পরাগ বলেন, রেলপথ ভেঙ্গে যাওয়ার কারণে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় আমাদের দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে। বুড়িমারী-লালমনিরহাট সড়ক পথে ছোট বড় খাল তৈরী হওয়ায় মটরযানসহ সাধারন মানুষের চলাচলে কষ্টকর হয়ে পড়েছে। ট্রেনে ভ্রমন করা সকলের জন্যই আরামদায়ক। কিন্তু রেলপথ ভেঙ্গে যাওয়ায় আমরা এখন চরম দুর্ভোগে পড়েছি। এদিকে সড়ক পথেও পন্য পরিবহন অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার নাজমুল হোসেন জানান, লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেল রুটের অনেক স্থানে রেল লাইনের উপর দিয়ে বন্যার পানি প্রবাহিত হওয়ায় বেশ কিছু স্থানে ছোট বড় কিছু গর্তের সুষ্টি হয়েছে। আমাদের রেলের ইঞ্জিনিয়াররা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পানি কমলে কাজ শুরু করা হবে। কিন্তু পানি না কমা পর্যন্ত কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে যত তারাতারি সম্ভব এই রুটে যেন ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয় আমরা সে চেষ্টাই করছি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »