১০ গরু লুটের পর মিলল খামারে নৈশপ্রহরীসহ দুজনের লাশ   

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ সদর উপজেলার বড়বিলা গ্রামে গতকাল রোববার রাতে একটি খামার থেকে দুর্বৃত্তরা ১০টি গরু লুট করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। লুটের সময় তাঁরা খামারের দুই প্রহরীকে শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ সোমবার সকালে ইদ্রিস আলী (৩০) নামের একজন প্রহরীর লাশ পুকুরে পাওয়া যায়। পরে মোজাফফর মিয়া (৫৫) নামে স্থানীয় আরেকজনের লাশ পাওয়া যায়।

নিহত দুজনের বাড়ি বড়বিলা গ্রামে। আকাশি অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রি নামের ওই খামারের নৈশপ্রহরী হামেদ আলী বলেন, গত রাত আনুমানিক তিনটা থেকে সাড়ে তিনটার মধ্যে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ট্রাক নিয়ে আসে। তাঁরা ইদ্রিস আলী ও তাঁকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। তাঁকে বেঁধে খামারে রেখে দেয়। ইদ্রিস আলীকে পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। তাঁরা খামার থেকে ১০টি গরু লুট করে।

হামেদ আলী আরও জানান, তিনি খামার থেকে পালিয়ে গ্রামবাসীকে ঘটনাটি জানান। আজ সোমবার ভোরে ওই পুকুরে জাল ফেলে ইদ্রিসের লাশ উদ্ধার করা হয়।

বেলা ১১টার দিকে পাশের আরেকটি পুকুর থেকে মোজাফফর মিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, সম্ভবত গরু চুরির ঘটনা দেখে ফেলায় তাঁকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

আহত হামেদ আলী ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে খামার থেকে কর্মচারী আবু তাহেরকে আটক করেছে পুলিশ।

ময়মনসিংহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নূরে আলম বলেন, এ নিয়ে তদন্ত চলছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »