চট্টগ্রাম বন্দর উৎসবমুখর, কাল সিবিএ নির্বাচন

Feature Image

দীর্ঘ এক যুগ পর আগামীকাল বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বন্দর কর্মচারী পরিষদ (সিবিএ) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত পৃথক ৩টি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। নির্বাচনকে ঘিরে উৎসবমুখর হয়ে উঠেছে সমগ্র বন্দর এলাকা।

বহুল আলোচিত এই সিবিএ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্যানেলগুলো হলো চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আজম নাছির উদ্দিন সমর্থিত বর্তমান সিবিএ’র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বাধীন আবুল মনছুর আহমেদ ও মো. ফখরুল ইসলাম প্যানেল। নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সমর্থিত আবদুর রহমান সিকদার, রফি উদ্দিন খান ও শহীদুল আলম বকুল প্যানেল এবং সাংসদ এমএ লতিফ ও ডাঃ আফসারুল আমীন সমর্থিত সৈয়দ আহমদ বাদল ও সালাউদ্দিন খান প্যানেল।

গত কয়েক মাস ধরেই নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য এক পক্ষ দাবি জানিয়ে আসার প্রেক্ষিতে বিষয়টি সর্বোচ্চ আদালতে গড়ায়। আদালত থেকেও নির্বাচন অনুষ্ঠানের পক্ষে রায় দেওয়া হয়।

এর আগে ২০০৫ সালে অনুষ্ঠিত বন্দর সিবিএ নির্বাচনে ৫টি রেজিস্টার্ড শ্রমিক সংগঠন অংশ নেয়। তখন আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, বামপন্থীসহ ৫টি রেজিস্টার্ড সংগঠন থাকলেও ২০১০ সালে সরকার চট্টগ্রাম বন্দরে একটি মাত্র রেজিস্টার্ড সিবিএ’র অধীনে প্রতিনিধি নির্বাচনের পদ্ধতি চালু করে। সে সময় সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর দেওয়া কমিটিই সিবিএ হিসেবে রেজিস্ট্রেশন পায় এবং দায়িত্ব পালন করে ।

প্রতি দুই বছর অন্তর সিবিএ প্রতিনিধি নির্বাচনের বিধান থাকলেও সিবিএ’তে থাকা নেতৃবৃন্দ নির্বাচনের উদ্যোগ গ্রহণ করেননি। এমনকি ২০১৪ সালে সিবিএ’র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ কয়েকজন চাকরি থেকে অবসর ও মারা গেলেও পরবর্তী দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণ সিবিএ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য পদে নিজেদের উন্নীত করে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। সর্বশেষ বিষয়টি উচ্চ আদালতে গড়ালে আদালত নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্দেশ প্রদান করেন।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দরের বহুল আলোচিত এই নির্বাচন ।

আরো খবর »