গোপালগঞ্জে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উত্তেজনা সংবাদ সম্মেলন

Feature Image

গোপালগঞ্জ থেকে এস এম সাব্বিরঃ  গোপালগঞ্জে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের মধ্যে ফেসবুক স্টেটাস নিয়ে উত্তেজনা চলছে। যুবলীগের এক কর্মী ফেসবুকে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুল হামিদকে নিয়ে খারাপ মন্তব্য করে। এরই সূত্রপাত ধরে দিনগত বুধবার রাতে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এর এক পর্যায় জেলা যুবলীগের সভাপতি জিএম শাহাবুদ্দিন আজমের বাড়িতে সন্ত্রাসীরা গুলি করে। এ নিয়ে ফেসবুক জুড়ে দু’পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে রেশা-রেশি ঘটছে।

এ ব্যপারে বৃহস্পতিবার দুপুরে পাঁচুড়িয়া নিজ বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুল হামিদ।
তিনি বলেন, আমাকে রাজনৈতিক ভাবে ছোট করতে যুবলীগ কর্মী ফেসবুকে খারাপ স্টেটাস দেয়। বিষয়টি জেলা যুবলীগ সভাপতি জিএম শাহাবুদ্দিন আজমকে জানাই। এবং ঘটনাটি সমাধানের জন্য আমি তাঁর বাড়িতে গেলে সন্ত্রীরা আমার উপর হামলা করে।

 

এ সময় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। তখনই ঘটনাটি দ্রæত সমাধান করি।
কিন্তু কোন এক নেতার ইন্দনে আমার বিরুদ্ধে সোসাল মিডিয়ায় অপপ্রচার চালাচ্ছে। তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে যুবলীগের সভাপতি জিএম শাহাবুদ্দিন আজম জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকীর উপর শ্রদ্ধা রেখে কোন বক্তব্য দেননি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্র লীগের সহ-সভাপতি রিয়াদ মোল্যা, শেখ রাসেল, মোজাহিদুল ইসলাম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদ হাসান জমাল প্রমুখ।

আরো খবর »