সপ্তাহ ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৭০ শতাংশ

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: পর পর দুই সপ্তাহ প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন কমার পর গত সপ্তাহে এর পরিমাণ বেড়েছে। শেষ সপ্তাহে ডিএসইতে মোট লেনদেন আগের সপ্তাহের তুলনায় বেড়েছে ৭০ শতাংশ। তবে আগের সপ্তাহে জাতীয় শোক দিবস ও জন্মাষ্টমী থাকায় লেনদেন হয়েছিল মাত্র তিনদিন। আর শেষ সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ২ শতাংশের কিছু বেশি।

লেনদেন বাড়ার পাশাপাশি শেষ সপ্তাহে ডিএসইতে মূল্যসূচকও বেড়েছে। গত সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৪ দশমিক ৩১ পয়েন্ট বা দশমিক ৪১ শতাংশ বেড়েছে। অপর দুটি সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ২ দশমিক ২৫ পয়েন্ট বা দশমিক ১১ শতাংশ বেড়েছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক বেড়েছে ১ দশমিক ৪৪ পয়েন্ট বা দশমিক ১১ শতাংশ।

এদিকে গত সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধনের পরিমাণ কমেছে। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৯৭ হাজার ৪২ কোটি টাকা। যা তার আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৩ লাখ ৯৭ হাজার ৪৮ কোটি টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ৬ কোটি টাকা।

গত সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে মোট ৪ হাজার ১৬৪ কোটি ২৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ২ হাজার ৪৪৬ কোটি ৪১ লাখ টাকার শেয়ার। অর্থাৎ গত সপ্তাহে মোট লেনদেন বেড়েছে ১ হাজার ৭১৪ কোটি ৮৫ লাখ টাকা বা ৭০ দশমিক ২২ শতাংশ।

মোট লেনদেনের পাশাপাশি শেষ সপ্তাহে বেড়েছে দৈনিক গড় লেনদেনের পরিমাণও। গত সপ্তাহের প্রতি কার্যদিবসে গড় লেনদেন হয়েছে ৮৩২ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। যা তার আগের সপ্তাহে ছিল ৮১৫ কোটি ৪৭ লাখ টাকা। অর্থাৎ প্রতি কার্যদিবসে গড় লেনদেন বেড়েছে ১৭ কোটি ৩৮ লাখ টাকা।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া মোট ৩৩৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিটের মধ্যে ১৭৬টির দাম বেড়েছে। অপরদিকে কমেছে ১৪০টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টির দাম।

গত সপ্তাহে মোট লেনদেনের ৮৪ দশমিক ৯১ শতাংশই ছিল ‘এ’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ারের দখলে। এছাড়া বাকি ৫ দশমিক ৪৩ শতাংশ ‘বি’ ক্যাটাগরিভুক্ত, ৮ দশমিক ২৬ শতাংশ ‘এন’ ক্যাটাগরিভুক্ত এবং ১ দশমিক ৪০ শতাংশ ‘জেড’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ার।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বিবিএস ক্যাবলসের শেয়ার। গত সপ্তাহে প্রতিষ্ঠানটির মোট ২২৮ কোটি ২৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা সপ্তাহজুড়ে হওয়া মোট লেনদেনের ৫ দশমিক ৪৮ শতাংশ।

দ্বিতীয় স্থানে থাকা বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২০৮ কোটি ৬০ লাখ টাকা, যা সপ্তাহের মোট লেনদেনের ৫ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ। ১৩৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ফরচুন সুজ, এসিআই, রতনপুর রি-রোলিং মিলস, কেয়া কসমেটিক, ইফাদ অটোস, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল এবং আইডিএলসি ফাইন্যান্স।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »