মিরপুরে গৃহবধূকে শালিসে নির্যাতনের অভিযোগ

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি,স্বাধীনবাংলা২৪.কম

কুষ্টিয়া : মিরপুরে ধর্ম মামার সাথে অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগে গ্রাম্য শালিসে এক গৃহবধূকে বেধড়ক মারপিট করে শারীরিক নির্যাতন করা হয়েছে। নির্যাতিত ওই গৃহবধূকে চিকিৎসা গ্রহণের বাধা সৃষ্টি করে বাড়িতে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়নের বলিদাপাড়া গ্রামের রিপন আলীর স্ত্রী সালমা খাতুনের সাথে ধর্ম মামা ছাতিয়ান ইউনিয়নের সাপকামড়া গ্রামের সুবলের অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগে সোমবার সন্ধ্যায় তাদেরকে ওই গৃহবধূর বাড়িতে ভাত খাওয়ার সময় স্থানীয় জনগণ ধরে নিয়ে যায়।

এ বিষয়টি নিয়ে গভীর রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুলের উপস্থিতি শালিসি বৈঠক বসে। শালিসের সদস্যরা ওই দুইজনকে বেধড়ক মারপিট এবং ধর্ম মামার ২০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য্য করেন। তাৎক্ষণিক টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় তার ব্যবহৃত মটরসাইকেলটি ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুলের জিম্মায় রাখা হয়। শালিসের বিচারকগণ পরবর্তীতে নির্যাতিত ওই গৃহবধূকে তার বাড়িতে আটকে রেখে পল্লী চিকিৎসক দিয়ে গোপনে চিকিৎসা প্রদান করছেন। শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »