জেনে নিন তেজপাতার ১০ টি স্বাস্থ্যকর গুণ

Feature Image

নিউজ ডেস্ক : রান্নার স্বাদ বাড়ানোর জন্য বহুদিন ধরেই তেজপাতার ব্যবহার করা হয় | কিন্তু আমাদের মধ্যে বেশিরভাগই জানি না তেজ পাতা আমাদের শরীরস্বাস্থ্যের জন্যও খুব ভালো | আসুন দেখে নিন তেজপাতার গুণাগুণ এবং আমাদের কী কাজে লাগে |

১) চুলের স্বাস্থ্য বৃদ্ধি করে‚ খুসকি কমায় : খুব সহজেই খুসকি দূর করতে পারে তেজপাতা | এর জন্য কয়েকটা তেজপাতা জলে ফুটিয়ে নিন | ঠান্ডা করে সেই জল মাথার স্কাল্পে আর চুলে লাগিয়ে রাখুন | কয়েক মিনিট রেখে চুলে শ্যাম্পু করে নিন | মাথার স্কাল্প থেকে চুলকানি দূর করতে কয়েকটা তেজপাতা ভিজিয়ে রেখে বেটে নিন | এতে কিছুটা নারকেল তেল মিশিয়ে মাথার স্কাল্পে লাগিয়ে নিন | ৩০ মিনিট রেখে হাল্কা গরম জলে চুল ধুয়ে নিন |

২) ডায়বেটিস কন্ট্রোল করে : পরীক্ষা করে দেখা গেছে নিয়মিত তেজপাতা খেলে ডায়বেটিস কন্ট্রোলে থাকছে | দেখা গেছে তেজপাতায় এমন উপাদান আছে যা রক্তে ইনসুলিনের মাত্রা কমায় |

৩) হজমশক্তি বাড়ায় : কনস্টিপেশন হয়েছে? পেট ফেঁপে গেছে? এর সমাধান তেজপাতা হতে পারে | আয়ুর্বেদে হজম শক্তি বাড়ানোর জন্য তেজপাতা ব্যবহার করা হয় | তেজপাতা শরীর থেকে ক্ষতিকারক টক্সিন বের করে দেয় | এছাড়াও এই পাতায় উপস্থিত এনজাইম সহজেই খাবার হজম করতে পারে |

৪) হার্ট ভালো রাখে : তেজপাতায় rutin আর caffeic অ্যাসিড আছে যা হার্টের দেওয়াল শক্ত করে এবং কোলেস্টেরল লেভেল কমায় |

৫) ব্যথা-বেদনা কমায় : তেজপাতায় anti-inflammatory প্রপার্টি আছে যা ব্যথা-বেদনা কমায় | বিশেষত মুচকে গেলে‚ বা শরীরের জয়েন্টে ব্যথা হলে এমনকি দেখা গেছে বাতের ব্যথাও কমিয়ে দিতে পারে তেজপাতা | তেজপাতা বেটে ব্যথার ওপর লাগিয়ে দিন | ২০ মিনিট রেখে হাল্কা গরম জলে ধুয়ে নিন | এছাড়াও তেজপাতার তেলও ব্যবহার করতে পারেন |

৬) ক্যান্সার রোধ করে : কয়েকটা স্টাডি বলছে তেজপাতা ক্যান্সার সেল নষ্ট করে দেয় | তেজপাতায় উপস্থিত phytonutrients and catechins ক্যান্সার সেল বাড়তে দেয় না |

৭) দ্রুত ক্ষত সারিয়ে তোলে : বহু যুগ ধরেই তেজপাতা বাটা দিয়ে ক্ষত সারানোর চল আছে | আসলে তেজেপাতায় অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল আর অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল প্রপার্টি আছে তাই এমনটা হয় | এছাড়াও ফাংগাল ইনফেকশন সারাতেও কাজে আসে |

৮) কাশি সারিয়ে তোলে একই সঙ্গে গলা খুশখুশ কমায় : তেজপাতা খুব সহজেই রেস্পিরেটরি সিস্টেমকে পরিষ্কার করে দিতে পারে | সর্দি হোক বা কাশি তেজপাতা দ্রুত তা সারিয়ে তুলতে পারে | এর জন্য জলে ৪-৫টা তেজপাতা ফুটিয়ে নিন | জল অল্প ঠান্ডা করে নিয়ে একটা কাপড়ে ভিজিয়ে তা বুকে সেঁক দিন |

৯) কিডনি স্টোনের মোকাবিলা করে : দেখা গেছে তেজপাতা সেবনের ফলে শরীর থেকে urease-র মাত্রা কমে | শরীরে অতিরিক্ত urease জমে গেলে তা কিডনি স্টোনে পরিণত হয় | এছাড়াও অন্য গ্যাস্ট্রিক সমস্যা দেখা দেয় |

১০) স্ট্রেস আর উৎকন্ঠা কমায় : স্ট্রেস বা উৎকন্ঠার মধ্যে থাকলে এক কাপ তেজপাতা চা খান | দেখবেন নার্ভ শান্ত হয়েছে‚ উৎকন্ঠা কমেছে এবং তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়তেও পারছেন |

Loading...

আরো খবর »