কোন ধরনের মানুষকে মশা বেশি কামড়ায়?

Feature Image

নিউজ ডেস্ক : এখন বর্ষাকাল। বৃষ্টির জমা জলে ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়া, চিকুনগুনিয়া ভাইরাস বহনকারী মশাদের জন্ম। যে কারণে এসময়ে মশার উপদ্রব তুলনামূলক বেশি। কিংবা একতলায় বাড়ি। বিকেল হতে না হতেই ঘরময় পিলপিল করে মশা। পা ঝুলিয়ে বসলে কামড়ে পা লাল করে দেয়। কারোর কারোর আবার অভিযোগ, তাদের নাকি বেশি পরিমাণে মশা কামড়ায়। কাউকে কাউকে আবার কামড়ায় না। তা হলে কি মশারাও বাছবিচার করে?

 

একেবারেই তাই। রক্ত চোষার ব্যাপারে মশারা খুব চুজ়ি। ঘ্রাণশক্তি প্রয়োগ করে বুঝে নেয়, কার রক্ত বেশি সুস্বাদু। সেই বুঝে ফুঁটিয়ে দেয় হুল। এই নিয়ে দেশ-বিদেশে পরীক্ষানিরীক্ষা হয়েছে বিস্তর। জানা যায়, শরীরিক মিশ্রপদার্থ (compounds) ও ঘ্রাণ পছন্দ হলে মশারা ছেকে ধরতে পারে, নচেৎ নয়। আমাদের শরীরে ৪০০টি মিশ্রপদার্থ রয়েছে। অন্তত ৫০ মিটারের দূরত্ব থেকে ঘ্রাণ পায় মশা। অতদূর থেকে ঘ্রাণেই বিচার করে সেই ব্যক্তির রক্ত পছন্দ কি না। সেই বুঝে আটক!

 

কী আপনার ব্লাড গ্রুপ?
আপনার ব্লাড গ্রুপ কী? A না O? A হলে আপনি বেঁচে গেলেন। কারণ, A ব্লাড গ্রুপের চেয়ে O ব্লাড গ্রুপের রক্ত বেশি পছন্দ মশাদের। B গ্রুপের হলেও মশারা রক্ত খেতে আগ্রহী, কিন্তু O ব্লাড গ্রুপের মতো B অতটাও পছন্দ নয়।

শরীর থেকে কি বেশি পরিমাণে কার্বন ডাই অক্সাইড নির্গত হয়?
কার্বন ডাই অক্সাইড বেশি পছন্দ মশাদের। প্রাপ্তবয়স্কদের শরীর থেকে যেহেতু বেশি পরিমাণে কার্বন ডাই অক্সাইড নির্গত হয়, তাই শিশুদের তুলনায় বড়দের বেশি কামড়ায় মশা। একই কারণে গর্ভবতী মহিলাদেরও মশা বেশি কামড়ায়।

খেলাধূলা পছন্দ?
শরীরের উত্তাপ পছন্দ মশাদের। ঘাম পছন্দ এবং ঘামের ঘ্রাণ পছন্দ। ল্যাকটিক অ্যাসিড, ইউরিক অ্যাসিড, অ্যামোনিয়া ও ঘামে উপস্থিত অন্যান্য মিশ্রপদার্থ অত্যন্ত প্রিয় মশাদের। খেলাধূলা করেন যাঁরা, তাঁদের শরীরে রক্ত চলাচল বেশি। গা গরম থাকে বেশি। ঘাম হয় বেশি। ও ঘামের ঘ্রাণও বেশি। ফলত, মশাকামড়ের পরিমাণও বেশি।

 

ত্বকের ধরনের উপর নির্ভর করে মশার কামড়
ত্বকে কি স্টেরয়েড বা কোলেস্টেরলের পরিমাণ বেশি? উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, আপনাকে মশারা বেশি পরিমাণে কামড়াবে। তবে হ্যাঁ, ত্বকে কোলেস্টেরল বেশি থাকা মানে এটা নয় শরীরেও পরিমাণ বেশি হবে।

 

বিয়ার খেতে ভালো লাগে?
বিয়ার পান করলে ঘামে ইথানলের পরিমাণ বাড়ে। ইথানল মশাদের আকৃষ্ট করে অতিমাত্রায়। তাই বিয়ার খাওয়ার পর মশারা যদি আপনাকে ছেকে ধরে আশ্চর্য হবেন না।

আরো খবর »