ওয়ার্নারের পর স্মিথকেও ফেরালেন সাকিব

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ক্রীড়া ডেস্ক: বিশ্বসেরার অর্থটা আরেকবার প্রমাণ করলেন সাকিব আল হাসান।

চতুর্থ দিনের সকাল থেকেই টাইগার বোলারদের চেষ্টা ছিল ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভেন স্মিথ জুটি ভাঙার। সেই ওয়ার্নার ও স্মিথ দুজনকেই ফিরিয়ে অনেকটা স্বস্তি এনে দিয়েছেন সাকিব।

মারকুটে ব্যাটিংয়ে নিজের শতক তুলে দলকে জয়ের দিকে নিয়ে যাচ্ছিলেন ওয়ার্নার। অবশেষে সেই ৪২তম ওভারে সেই ওয়ার্নারকেই ১১২ রানে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন সাকিব। থামে ওয়ার্নার ঝড়।

এর কিছু পরেই ৯৯ বলে ৩৭ রান করা স্মিথকে ফেরান সাকিব। মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন স্মিথ।

এর মধ্যে অবশ্য দলকে বেশ শক্তিশালী ভিতে দাঁড় করিয়ে ফিরেছেন এই দুই ব্যাটসম্যান।

৪৮ ওভার শেষে অজিদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৮৭। পিটার হ্যান্সকম্ব ১০ ও ম্যাক্সওয়েল ১৫ রানে ক্রিজে রয়েছেন।

এদিকে জয়ের জন্য টাইগারদের দরকার ৬টি উইকেট।

তবে তৃতীয়দিনে ২৮ রানের ভেতরে যখন অজিরা দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে তখন স্মিথ ও ওয়ার্নারকে ফেরানোর সুযোগ মিস না করলে দৃশ্যপটটা অন্যরকম হতে পারতো।

ম্যাচ জয়ের ভিত পেয়ে যেতে পারতো বাংলাদেশ। ওয়ার্নার ১৪ ও স্মিথ ব্যক্তিগত ৩ রানের মাথায় আউটের হাত থেকে বেঁচে যান।

সাকিব আল হাসানের বলে কাট করতে গিয়ে ওয়ার্নার স্লিপে ক্যাচ দিলেও মিস করেন বলের লাইন থেকে সরে যাওয়া সৌম্য সরকার।

স্ট্যাম্পিংয়ে থার্ড আম্পায়ার রিপ্লেতে অল্পের জন্য রক্ষা পাওয়া স্মিথ আবারো ভাগ্যের সহায়তা পান।

আর মেহেদি হাসান মিরাজের বল তার ব্যাটে লেগে শর্ট লেগে দাঁড়ানো সাব্বির রহমানের তালুতে গিয়ে পড়ে। কিন্তু অহেতুক লাফিয়ে ওঠায় ক্যাচবন্দি করতে পারেননি।

এর আগে টাইগাররা তাদের দ্বিতীয় ইনিংস ২২১ রানে শেষ করে, আগের ৪৩ রানের লিডসহ অজিদের সামনে দাঁড়ায় ২৬৫ রানের টার্গেট। বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে উল্লেখযোগ্য রান করেছেন তামিম ইকবাল ৭৮, মুশফিক ৪১।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ন্যাথান লিওন ৬ উইকেট দখল করেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »