ওরা খোকসার ৩০ জন একই বৃন্তের ফুল মোরা হিন্দু-মুসলমান

Feature Image

কুষ্টিয়া থেকে হুমায়ূন কবিরঃ বন্যা একটি ভয়ংকর শব্দ। আর বন্যা কবলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতিবদ্ধ একদল তরুণ মেধাবী ছাত্রশিক্ষক মঙ্গলববার সকাল ৭ টায় খোকসা থেকে দুইটি মাইক্রোবাসে বিভক্ত হয়ে লাল গেঞ্জি পরিহিত ২ জন প্রভাষক সহ ১৫ জন মেধাবী তরুণ বগুড়া বিভাগের গাঁইবান্ধা জেলার পশ্চিম গোবিন্দগঞ্জ এর শাহপাড়া এবং নীল গেঞ্জি পরিহিত ১৫ জন নঁওগা জেলার আত্রাই এর উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

 

খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর কর্মকর্তা ডাক্তার মোঃ কামরুজ্জামান সোহেল এর ছাত্রজীবনের বন্ধু প্রভাষক রাশেদ হাসান পলাশের সার্বিক সহযোগিতায় পশ্চিম গোবিন্দগঞ্জ এর শাহপাড়াতে পৌঁছে অত্র এলাকার বন্যা কবলিত মানুষের সাথে প্রত্যক্ষভাবে কথা বলে তাদের সমস্যার শ্রবণ করে প্রয়োজনীয় ঔষধ যেমনঃ অ্যামোডিস, ওমিপ্রাজল, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, সেমি-প্রাজল, সিনামিন এছাড়াও সেমাই, চিনি, দুধ, চিড়া, ব্রেড, মোমবাতি, দিয়াশলাই এর সমন্বিত ১৬০ টি ত্রাণের প্যাকেট সরবরাহ করণে আত্মনিয়োজিত ছিলেন রমানাথপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাষক নূর-আলম, খোকসা কলেজের প্রভাষক জাহিদ হাসান রাহাত সহ রানা নায়েক, জাহিদ, নোমান, তানিম আরও অনেকেই।

অন্যদিকে আত্রাই এর বন্যার্তদের ১৮০ প্যাকেট ত্রাণ সরবরাহ করেন নীলের পঞ্চদশ। বন্যা কবলিত এই উদ্বাস্ত মানুষের পাশে দাড়াতে পেরে ধন্য এই তিন দশের ত্রিশ জন মেধাবী ছাত্রশিক্ষক।

পরিশেষে, তারা খোকসার সর্বস্তরের মানুষের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তাদের ডাকে সাড়া দিয়ে বন্যা কবলিত মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য। সাফল্যের সাথে এই মহৎ কাজটি শেষ করে তারা আত্মবিশ্বাস এর তুঙ্গে অবস্থান করছে এবং ভবিষ্যতে নিজেদেরকে এই ধরণের কাজে এগিয়ে আসার জন্য আত্মপ্রত্যয়ী ও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন।

আরো খবর »