প্রকৃতি স্তন দিয়েছে মেয়েদের সুন্দর করতে! বলছে স্কুলপাঠ্য বই…

Feature Image

ওয়েব ডেস্ক: মহিলাদের স্তনের দু’টি কাজ। একটি হল, সুডৌল স্তন একজন মহিলাকে সুন্দর ও আকর্ষণীয় করে তোলে। দ্বিতীয়টি হল, সন্তানকে মাতৃদুগ্ধ খাওয়ানো। হ্যাঁ, কিশোর বয়সের পড়ুয়াদের জন্য একটি বইয়ে এই ধরনের বিষয়বস্তু নিয়ে তীব্র সমালোচনার ঝড় উঠল বিশ্বে।

ব্রিটেনের কিশোর বয়সের ছাত্রদের জন্য এই বইটির নাম ‘গ্রোয়িং আপ ফর বয়েজ।’ ২০১৩ সালে বইটি প্রকাশিত হয়। বয়ঃসন্ধিতে ছেলেদের যে মানসিক, দৈহিক পরিবর্তন ঘটে, তার বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা দেওয়া রয়েছে বইটিতে। মূলত বয়ঃসন্ধিতে পৌঁছনো ছেলেদের জন্য একটি বন্ধুত্বপূর্ণ পাঠ্যবই। সেই বইতেই মহিলাদের দেহের বর্ণনায় স্তন নিয়ে ব্যাখ্যার নিন্দা শুরু হয়েছে সব মহলে।

মেয়েরে দেহের বর্ণনায় লেখা হয়েছে, ‘প্রকৃতি দুটি কারণে মহিলাদের স্তন দিয়েছে। একটি হল, শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানো। অপরটি হল, স্তন একজন মহিলাকে আরও সুন্দর করে তোলে ও আকর্ষণীয়। যৌবনে পা দিলেই স্তনের আকার পরিপূর্ণ হয়। তখন তাঁরা, দুটি কাজেই স্তনকে ব্যবহার করতে পারেন।’

ফেসবুক থেকে টুইটার, তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে শেষ পর্য়ন্ত ক্ষমা চাইতে হয়েছে বইটির প্রকাশনা সংস্থাকে। টুইটারে অনেকের বক্তব্য, এই দাবি অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ। সেক্সিস্ট। অবিলম্বে এই বই প্রকাশ করা বন্ধ হোক। বইটির যাঁরা রিভিউ লিখেছেন, তাঁরা তীব্র নিন্দা করেছেন।

আরো খবর »