লালমনিরহাট জেলায় আবার ও বন‍্যার আশংকা

Feature Image

লালমনিরহাট:  লালমনিরহাট জেলায় আবার ও তিস্তা ও ধরলা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ফের বন্যার আশঙ্কা করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

শুক্রবার (০১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ধরলার কুড়িগ্রাম পয়েন্টে পানি প্রবাহ রেকর্ড করা হয় ২৫ দশমিক ০৬ সেন্টিমিটার। যা স্বাভাবিকের (২৬ দশমিক ৫০ সেন্টিমিটার) চেয়ে ১ দশমিক ৪৪ সেন্টিমিটার নিচে।

লালমনিরহাট পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী কৃষ্ণ কমল সরকার জানান, বৃষ্টি ও উজানের ঢলে তিস্তা ও ধরলার পানি প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়েছে। শুক্রবার দিনভর ৬০ সেন্টিমিটার পানি প্রবাহ বেড়েছে তিস্তা ধরলায়। পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প‍ূর্বের বন্যায় ভেঙে যাওয়ায় বাঁধ দিয়ে পানি লোকালয়ে প্রবেশ করছে। ফলে লালমনিরহাট সদর উপজেলার মোঘলহাট ও কুলাঘাট ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলগুলো প্লাবিত হয়েছে। ডুবে গেছে এসব অঞ্চলের ফসলের ক্ষেত। রোববার (০৩ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত পানি বাড়া কমা করবে। তবে হালকা বন্যার সম্ভবনা রয়েছে বলে আশঙ্কা করেছেন তিনি।

এদিকে, তিস্তার ডালিয়া পয়েন্টে সকাল থেকে পানি প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হলেও বিকেলে পানি প্রবাহ কমে যায় তিস্তায়।
তিস্তা সেচ প্রকল্পের ডালিয়া শাখার নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজার রহমান জানান, তিস্তার পানি প্রবাহ ৩০ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। তবে বিকেল নাগাদ তা কমে গিয়ে স্বাভাবিক অবস্থানে রয়েছে। তিস্তার পানি প্রবাহ আবারো বাড়তে পারে।

ধরলার পাড় পরিদর্শন করে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ জানান, ধরলায় পানি বৃদ্ধি পেয়েছে, তবে বিপদসীমা অতিক্রমের সম্ভবনা নেই। বিগত বন্যায় বাঁধগুলো ভেঙে যাওয়ায় পানি লোকালয়ে প্রবেশ করছে। বন্যা মোকাবেলায় জেলা প্রশাসন প্রস্তুত রয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

আরো খবর »