পশ্চিমবঙ্গে ইলিশের ঢল

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের মাছের বাজারে এখন ইলিশের ঢল নেমেছে। সরবরাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি বাজারে মিলছে ইলিশ। আর বাঙালিরাও রসনা তৃপ্তি করে খাচ্ছে ইলিশ মাছ।

১০-১২ দিন ধরে বঙ্গোপসাগরে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ায় মাছের দাম হঠাৎ করে কমে গেছে। কলকাতার খুচরা বাজারে গতকাল সোমবার ৫০০ থেকে ৬০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি হয়েছে ২৩০ থেকে ২৫০ রুপি কিলো দরে। আর পাইকারি বাজারে দর ছিল ১৫০ থেকে ২০০ রুপি। তবে ৩০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ খুচরা বাজারে বিক্রি হয়েছে ২০০ রুপি কিলো দরে।

হিলসা ফিস ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অতুল দাস বলেছেন, এখন আর তারা ইলিশ মাছ বাংলাদেশ থেকে আমদানি করছেন না। বাংলাদেশ সরকার ইলিশ রপ্তানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় সরকারিভাবে আর ইলিশ আসছে না পশ্চিমবঙ্গে। ২০১২ সালের জুন মাসে বাংলাদেশ সরকার ইলিশ রপ্তানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। তবে তিনি এ কথাও বলেছেন, চোরাই পথে কিছু ইলিশ পশ্চিমবঙ্গে আসছে। তবে স্থানীয় ইলিশের দাপটে বেশি দাম দিয়ে কিনতে চাইছেন না বাংলাদেশের ইলিশ। তারপরও কিছু মানুষ তো আছেন তাঁরা পদ্মার ইলিশ খাওয়ার জন্য অপেক্ষা করে থাকেন। তাঁরা দাম যাই হোক না কেন, পদ্মার ইলিশ কিনছেন।

অতুল দাস বলেছেন, ইলিশের মূল্য কমে যাওয়ায় এক ধাক্কায় কমে গেছে অন্যান্য মাছের দামও। যে পাবদা মাছ ৬০০ রুপির নিচে পাওয়াই যেত না, সেই পাবদার মূল্য কমে হয়েছে ৩০০ রুপিতে। অন্যান্য মাছের দামও কমেছে। ছোট চিংড়ি মিলেছে ১৫০ রুপিতে। আগে ছিল যা ৩০০ থেকে ৩৫০ রুপি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »