‘ফ্রিজ-আইপিএস ব্যবসার আড়ালে জঙ্গিবাদে আবু’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: রাজধানীর মিরপুরের দারুসসালাম থানার বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের দক্ষিণে অবস্থিত বর্ধমান বাড়ি এলাকার ভাঙা ওয়াল গলির ছয় তলা একটি বাড়িতে ‘জঙ্গিবিরোধী’ অভিযানে চিহ্নিত ব্যক্তির নাম আবু আবদুল্লাহ বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

র‌্যাবের ভাষ্য, বাড়িটিতে নব্য জেএমবি সারোয়ার তামিম গ্রুপের সদস্য আবু আবদুল্লাহ নামে এক জঙ্গিসহ কয়েকজন অবস্থান করছেন।

সোমবার মধ্যরাত থেকে জঙ্গি আছে সন্দেহে ওই বাড়িটি অভিযান শুরু করে র‌্যাব। অভিযানের পর বেশ কয়েকটি বিকট শব্দ পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে এগুলো বোমা বিস্ফোরণের শব্দ।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজির আহমেদ বলেন, ওই বাড়ির পঞ্চম তলার বাসিন্দা আবু আবদুল্লাহ একজন দুর্ধর্ষ জঙ্গি। সে কবুতর, ফ্রিজ ও আইপিএস- এর ব্যবসার আড়ালে জঙ্গি কার্যক্রম চালাচ্ছে।

র‌্যাব ডিজি বলেন, ২০০৫ সাল থেকে আবু আবদুল্লাহ জঙ্গি তৎপরতার সঙ্গে জড়িত।

ব্রিফিংয়ে বেনজির আহমেদ জানান, বাড়িটির পঞ্চম তলায় জঙ্গি আবু, তার দুই সহযোগী, দুই স্ত্রী ও দুই সন্তানসহ মোট ৭ জন রয়েছে। তার সন্তানদের একজনের বয়স আড়াই বছর, আরেক জনের ১০ বছর।

তিনি বলেন, জঙ্গি আস্তানার ভেতরে প্রচুর দাহ্য পদার্থ, এসিড, প্রেট্রল, ৫০টির অধিক আইইডি বোমা রয়েছে।

র‌্যাব ডিজি বলেন, আমরা ধর্য্যের সঙ্গে জঙ্গিদের সাথে যোগাযোগ করছি, আত্মসমর্পণের সময় দিচ্ছি। যদি আত্মসমর্পণ না করে তবে আমরা কঠোর হতে বাধ্য হব।

তিনি বলেন, চূড়ান্ত অভিযানের আগে ছয়তলা ভবনের ২৩টি ফ্লাট থেকে ২৪ নারী, ২৫ জন পুরুষ ও ১৫ জন শিশুকে নিরাপদে সরিয়ে আনা হয়েছে। বাড়িটির গ্যাস, পানি ও বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

দারুসসালাম থানার ২/৩/বি, বাড়ির মালিকের নাম অাজাদ। আবু ওই বাড়িটিতে প্রায় ১০ বছর ধরে বসবাস করে আসছে বলে স্থানীয়রা জানায়। তিনি নতুন-পুরাতন আইপিএস, ইউপিএস ও ফ্রিজের ব্যবসা করেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »