নীলফামারীতে বাড়িতে ঢুকে গৃহকর্তাকে হত্যা

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি,স্বাধীনবাংলা২৪.কম

নীলফামারী থেকে আব্দুর রাজ্জাক:  নীলফামারীতে গৃহকর্তাকে বাড়ীতে একা পেয়ে তাকে বেধে বাড়ির মুল্যবান জিনিসপত্র চুরি করে পালিয়েছে দুবৃত্তরা। এ ঘটনায় আহত গৃহকর্তার মৃত্যু হয়েছে। নিহত গৃহকর্তা হলেন, অতুল চন্দ্র রায় (৬০)। সে জেলার ডোমার উপজেলার নোয়ানী বাকডোকরা গ্রামের বিষ্ট রাম মোহনের ছেলে। এ ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তার নিজ বাড়ীতে।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে এলাকাবাসী জানায়, নিহত অতুলের ছেলে দক্ষিণ কোরিয়ায় থাকেন। বাড়িতে অতুল, তার স্ত্রী ও এক বৌমা সহ তারা থাকত। গত কয়েক দিন আগে অতুলের বৌমা তার বাবার বাড়ীতে বেড়াতে যাওয়ায় গতকাল বৃহস্পতিবার অতুলের স্ত্রী তার বৌমাকে আনতে পাশর্^বর্তী ডিমলা উপজেলার ডালিয়া গ্রামে যায়। এ সময় বাড়িতে অতুল চন্দ্র একাই ছিল। এই সুযোগে কে বা কারা বাড়িতে প্রবেশ করে অতুলকে বেধে বাড়ীর মুল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়। সন্ধ্যার পরেও অতুলের বাড়ীর মুল গেট ভেতর হতে বন্ধ দেখে ভিতরে কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে অতুলের এক নিকটাত্বীয় দেয়াল টপকে বাড়িতে প্রবেশ করে ঘরে ঢুকে অতুলকে হাত, পা ও মুখ টেপ ও শাড়ী দিয়ে বাধাবস্থায় দেখতে পায়। এ সময় এলাকাবাসী তাকে অজ্ঞান অবস্থায় দ্রুত উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোকছেদ আলী মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি তদন্ত চলছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »