পিরোজপুরে ভাতিজার হাতে স্কুল শিক্ষক খুন

Feature Image

ব্যুরো প্রধান, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

পিরোজপুর থেকে এস সমদ্দার: পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার ইকড়ি ইউনিয়নের পশ্চিম পশারীবুনিয়া মাদার্সী গ্রামের বাসিন্দা হেতালিয়া নেছার উদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক মাওলানা নাসীর উদ্দিন হাওলাদার (৬০) ভাতিজা ছালাম হাওলাদারের আঘাতে সোমবার সকালে মারা যায়। স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে , শিক্ষক নাসীরের সাথে একই বাড়ির ছালাম হাওলাদার গংদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল।

 

স্থানীয় পর্যায়ে শালিস বৈঠকে ছালামগং  মিমাংসায় রাজি হয়নাই। গত রোববার পুনরায় নাসীরের সাথে আঃ ছালাম হাওলাদার গংদের বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে ছালামগংরা নাসীরের উপর এলোপাতারি মারপিট শুরু করে এসময় নাসীর গুরুতর আহত হলে তাকে স্বজনরা তাকে দ্রুত ভাণ্ডারিয়া হাসপাতাল-বরিশালের পর ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করার পর সোমবার সকালে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করে বলে নিহতের স্বজন আসাদ জানান।

 

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মো. শাহীন হাওলাদার বাদি হয়ে ভা-ারিয়া থানায় ১৩জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে। ভা-ারিয়া থানার  ওসি মো. কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, মামলার প্রধান আসামী আ.ছালাম(৫৫), তার ছেলে রমিন হাওলাদার (২০) ও ভাইগ্না মিজানসহ তিন জনকে গ্রেফতার করে গতকাল সোমবার কোর্ট হাজতে প্রেররন করা হয়েছে।

 

ইতি পূর্বে নিহত অভিযুক্ত ছালাম হাওলাদার তার নিজের মেয়ের হাত কেটে জখম করে নাসীরের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা করে ।

এদিকে নাসীর হাওলাদার নিহতের ঘটনায় তার কর্মরত স্কুলের শিক্ষক,শিক্ষার্থী ফুসে উঠেছে। এবং অভিযুক্তদের দৃষ্টান্ত মুলক সাস্তির দাবি জানান।

 

 

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

 

আরো খবর »