হতভাগ্য পিতার সন্তান হিসাবে আপনাদের কাছে সাহায্য কামনা করছি

Feature Image

মাননীয় জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষন পূর্বক দানশীল সহৃদয়বানদের আর্থিক সহায়তা আশা করছে হার্টের বাল্ব নষ্ট হয়ে যাওয়া দরিদ্র কৃষক পিতার সন্তান কলেজ পড়ুয়া ছাত্র মিলন।
আমি রাশেদ খান মিলন আলাউদ্দিন আহমেদ ডিগ্রী কলেজে বাণিজ্য বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র। আমার বোন তিশা খাতুন অষ্টম শ্রেণীতে দুর্গাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী। আমার পিতা মুরাদ প্রামাণিক (৪৫)

বেশ কিছুদিন ধরে হার্টের সমস্যা দেখা দেওয়ায় চিকিৎসকের শরনাপন্ন হয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখা যায় তার একটি বাল্ব অকেজো হওয়ার পথে। দিনদিন শুকিয়ে যাচ্ছে অনতিবিলম্বে অপারেশন না করালে বাল্বটি নষ্ট হয়ে যাবে। আমার পিতা একদন দিনমজুর কৃষক। পরের জমিতে দিনমজুরির ভিত্তিতে কাজ করে আমাদের দুইভাইবোনকে লেখাপড়া শেখাচ্ছে এবং পরিবারের ভরণপোষণ চালাচ্ছিলেন। দরিদ্র কৃষক পিতার একার পক্ষে বিপুল পরিমান ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব নয়। আমার পিতার কোন সহায় সম্পদও নেই যে তাই দিয়ে চিকিৎসা করাবে।

 

এমতাবস্থায় আমার পিতা সুস্থতার জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার ওয়াস্তে আপনারা যারা সমাজের দানশীল ব্যক্তিবর্গ আছেন আমার পিতার বাল্ব অপারেশনের জন্য আর্থিক সাহায্য করে্ পিতার সুস্থতার পথ প্রশ্বস্ত করবেন । অসহায় দরিদ্র পিতার সন্তান হিসাবে আমি আপনাদের কাছে সাহায্য কামনা করছি। আপনারা সাহায্য না করলে আমার পিতার অবর্তমানে আমরা অথৈ দরিয়ায় পতিত হবো। আমার বাবা মুরাদ প্রামাণিকের হার্টের বাল্বে এরোটিক স্টেনোসিস (সার্ভার) এই দুরারোগ্য ব্যধি অপারেশন করাতে আনুমানিক ৩ কিম্বা ৪ লক্ষ টাকার দরকার। শিগগি্রই আমার বাবার অপারেশন না করালে যে কোন দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। এ ব্যাপারে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের সহ: অধ্যাপক ডা: এটিএম আতাউর রহমান হিরনও জানান দ্রুত অপারেশন করাতে হবে। তা না হলে যে কোন কিছু ঘটে যেতে পারে। মাননীয় সহৃদয়বান ব্যক্তি আপনাদের কাছে আমার পিতার চিকিৎসার জন্য সাহায্য প্রার্থনা করছি।
বিকাশ নম্বর : ০১৯৩৭ -৫১৫৭১১ (মিলন)

আরো খবর »