মোদী সরকারের কূটনৈতিক সাফল্য, লন্ডনে বাজেয়াপ্ত দাউদের সম্পত্তি

Feature Image

লন্ডন: দীর্ঘদিন ধরেই তার ঠিকানা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা৷ আর এবার এই আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দাউদ ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে এবার ব্রিটেনে নেওয়া হল এক বড় পদক্ষেপ৷ ব্রিটেনে দাউদের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷

একটি ব্রিটিশ সংবাদপত্র এই খবর তুলে ধরে জানিয়েছে, দাউদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে৷ এখানে দাউদের হোটেল থেকে শুরু করে বেশ কয়েকটি বাড়িও ছিল৷ যেগুলির মূল্য হাজার হাজার কোটি টাকা৷ বাজেয়াপ্ত করা সম্পত্তির মূল্য ৪২ হাজার কোটি টাকা৷ এখানে আরও বলা হয় যে, বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী ক্রিমিনাল দাউদ ইব্রাহিম৷

আর এই পদক্ষেপকে মোদী সরকারের এক কূটনৈতিক সাফল্য বলেই মনে করা হচ্ছে৷

প্রসঙ্গত, দাউদ যে পাকিস্তানেই আছে, সরাসরি না হলেও গত মাসেই সেকথা জানান পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পারভেজ মুশারফ৷ পাকিস্তানের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের সঙ্গে সাক্ষাত্কারে একথা বলেন তিনি৷

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে তিনি জানান, “ভারত অনেকদিন ধরে পাকিস্তানকে দোষারোপ করে আসছে৷ এখন কেন আমরা ভালো হব আর ওদের সাহায্য করব? আমি জানি না দাউদ কোথায় আছে৷ হয়তো এখানে আছে, বা অন্য কোথাও আছে৷ ভারত মুসলিমদের মেরে ফেলছে আর দাউদ প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছে৷”

ভারতের আশঙ্কা গ্লোবাল টেররিস্ট, মোস্ট ওয়ান্টেড ক্রিমিনাল দাউদ ইব্রাহিম পাকিস্তানেই কোনওখানে লুকিয়ে আছে৷ সেখান থেকেই সে তার কাজকর্ম চালাচ্ছে৷ অনুমান, করাচিই তার কার্যকলাপের কেন্দ্র৷ সেখানকার পালাতিয়াল হাউস থেকেই গ্যাং পরিচালনা করেন দাউদ৷ ১৯৯৩ সালে মুম্বইয়ে যে পরপর বিস্ফোরণগুলি হয়েছিল, তাতে হাত ছিল দাউদের৷ এরপরই সে ভারত ছেড়ে করাচি চলে যায় বলে মনে করা হয়৷ তারপর গত ১০ বছর ধরে নয়াদিল্লির পক্ষ থেকে ইসলামাবাদকে দাউদকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার অনুরোধ করা হচ্ছে৷ ইসলামাবাদকে এও জানানো হয়েছে, ভারতে একাধিক অপরাধে অভিযুক্ত দাউদ৷ তার বিচার চাইছে মানুষ৷ তাই তাকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হোক৷ কিন্তু বারবার বলা সত্ত্বেও মাথা ঘামায়নি ইসলামাবাদ৷

Loading...

আরো খবর »