দু’ফোটা অভিমানী শিশির- লিটন আব্বাস

Feature Image

শপথ করছি নিজের নামে একবার
আসতে দাও; বসতে দাও পাশে মুখোমুখি
সাথে কোরে শ্বাসমূল টানতে দিয়ো
যে হাতটি আগে বাড়ে তোমার
তাকে স্পর্শ করতে দিয়ো, বিশ্বাস করো
শুধুই স্পর্শের অধিকারটুকু নিরালা দুপুরে;
দুপুরায় জমে থাকা দুফোটা অভিমানী শিশিরে
মুখখানি ভেজাবো তারপর সব ভুলে
ভেসে থাকা রঙিন, সৌখিনÑ
মৎস্যপুকুরে পা ভিজিয়ে,
উঠে যাবো চিরকালের পথে।


শপথ করছি নিজের নামে একবার
শুধু খুব কাছাকাছি কিছুক্ষণ মুখোমুখি বসার
উপোষ রোদেলা দুপুরবেলা একমনে তাকিয়ে থাকার
এই সাময়িক অধিকারটুকু দিয়োÑ
তেজস্ব রোদের ওমটুকু। দিয়ো শোষনের সময়।
শপথ করছি নিজের নামেÑ
আর কোনদিন কইবনা, কাছে আসার মন চায়
কোনদিন না-দেখেও দেখবনা, দেখেও না-দেখা!

 

শুধু এইবেলা এই দুপুরটুকু আমার দিয়ো
পাশে বসে পুকুড়ে পা-খানি ভিজিয়ো
তারপর সব অভিমান, সব দুখ ধুয়ে দিয়ে
রোদে শুকোতে দেবো সব সোনালী স্মৃতি
রোদের ওমে পুড়িয়ে দিয়ো সব অতীত…
শপথ করে বলছি নিজের নামেÑ
একবার কাছে আসতে দাও, দক্ষিণা চাইনা-দয়া করো
একবার দান করো তোমার নিদেনসময়টুকু।
দাবী কেবল এই অধিকারহীন দুপুরবেলা,
নির্জন দুপুরায় দুজনে ঘামের গন্ধ মেখে
আমাদের যতো কাছাকাছি আসা, পাশাপাশি তাকিয়ে থাকা
সবকিছুর বিসর্জনের অঞ্জলি ভাগাভাগি করে যে যার পথে
বিপ্রতীপ সময়, সুজন-সম্পর্কের কাছে ফিরে যাওয়া
শপথ করছি শুধু নিজের নামে তাই বন্ধু নির্জলা
তোমার নামে আমার সব স্মৃতিÑ
সব উৎসর্গ মিশে যাবে নীরাভ নীলে!

আরো খবর »