খোকসায় চলছে শারদীয় দুর্গাপূজার মন্ডব প্রস্তুতি

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

কুষ্টিয়া: শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসব উদযাপন উপলক্ষে কুষ্টিয়া খোকসা উপজেলায় পূজা উদযাপন কমিটির তত্বাবধানে উপজেলায় মোট ৫৭টি পূজা মন্ডব প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে চলে এসেছে। উপজেলা পূজা মন্ডব উদযাপন কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস সাংবাদিকদের জানান কোনপ্রকার ভয়ভীতি ও আশংকা ছাড়াই প্রতিবারের ন্যায় এবারও খোকসায় সনাতন ধার্মালম্বীদের বৃহৎ উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন ইতিমধ্যে প্রশাসনের কাছে উপজেলার ৫৭টি পূজা মন্ডবের স্থান ও পারিপার্শিক লিখিত আকারে জমা দিয়েছি। প্রতিবারের ন্যায় এবারও সরকারীভাবে আর্থিক সাহায্য ও সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা পাওয়া যাবে। ধর্মীয় শ্বাস্ত্র মোতাবেক এবার মা দুর্গা দেবীর আগমান হবে নৌকায় এবং গমণ করবেন ঘোটকে (গোড়া)করে। এতে ধর্মীয় শ্বাস্ত্র মোতাবেক মানুষের জীবনের অফুরন্ত সুখ, কল্যাণ ও শান্তির ধন-দৌলৎ সহকারে পৃথিবীতে আবির্ভাব করবেন দুর্গাদেবী। শস্য শ্যামলে ভরে যাবে এই ধরাতল এমনটাই মনে করছে সনাতন ধর্মালম্বী সম্প্রদায়ের পুরোহিতগণ।

এদিকে খোকসা উপজেলার প্রচীনতম কালীবাড়ী মন্দিরে সবচেয়ে বড় পূজা মন্ডব স্থাপন করা হচ্ছে বলে জানান পূজা উদযাপন কমিটি। আনুমানিক ব্যায় ধরা হয়েছে প্রায় ৩লক্ষ টাকা। দর্শক সমাগম হওয়া ও ভক্তবর্গের সুষ্ঠভাবে পূজা অর্চনা সম্পন্ন করার সকল প্রস্তুতি প্রতিটা পূজা মন্ডে ইতিমধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছেন এলাকাভিত্তিক সংশ্লিষ্ট পূজা উদযাপন কমিটি। আগামী ২৬শে সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার থেকে পূজার আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হবে। এরই মাঝে রংতুলির আচর লাগাতে শুরু করেছে কিছু কিছু পূজা মন্ডবে। পূজা শুরু হওয়ার আগ মূহুর্তে মা দূর্গাদেবীকে সাজগুজের আনুসাঙ্গিক সকল সরঞ্জামাদি পরানো হবে বলে জানিয়েছেন মুর্তি কারিগরগণ। আগামী ৩০সেপ্টেম্বর শনিবার বিজয়া দশমীর মাধ্যমে বিষর্জন হবে বলে জানিয়েছেন পূজা মন্ডব কমিটির সভাপতি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »