ঝিনাইগাতীতে মানষিক ভারসাম্যহীন যুবকের আত্মহত্যা

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঝিনাইগাতী থেকে মুহাম্মদ আবু হেলাল: শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের ডেফলাই গ্রামে মানষিক ভারসাম্যহীন যুবক আশ্রাফুল হোসেন(২০) গাছের ডালের সাথে ফাঁস টাঙ্গিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বুধবার দিবাগত গভীর রাতে ডেফলাই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদে উঠে আশ্রাফুল এ ঘটনা ঘটায়। আত্মহত্যাকারী যুবক বাকাকুড়া গ্রামের নফসের আলীর ছেলে এবং ডেফলাই গ্রামের আকবর আলী ও মেছের আলীর ভাগিনা।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, আশ্রাফুল গর্ভে থাকাকালীন সময়ে তার বাবার সাথে মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এর পর থেকে ডেফলাই গ্রামের নানা মৃত শহিদুল্লাহ’র জায়গাতে বসবাস করে আসলেও বিগত প্রায় ৯মাস যাবৎ আশ্রাফুল মানুষিক রোগে ভোগছে।

শনিবার বিকালে সে কাউকে কিছু না বলে শেরপুরে যায় এবং সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ৮ঘটিকার দিকে একটি ব্যাগসমেত সে বাড়ীতে ফিরে এসে ঘরের ভিতরে ব্যাগটি রেখে তৎক্ষনাত বাহিরে চলে যায়। আশ্রাফুলের মাতা আয়শা বেগম ব্যাগ খুলে কাফনের কাপড় দেখতে পেয়ে পরিবারের লোকজনসহ এলাকাবাসী রাতব্যাপী সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজাখুজি করেও তার কোন সংবাদ না পেয়ে হতাশ হয়।

বৃহস্পতিবার ভোর হওয়ার সাথে সাথে স্কুলের ছাদের উপর গাছের ডালের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় আশ্রাফুলকে দেখতে পেয়ে এলাকার শতশত লোক ভীড় জমায়। সংবাদ পেয়ে ওসি বিপ্লব কুমার বিশ^াসের নির্দেশে এসআই খোকন চন্দ্র সরকার সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার সত্যতা সর্ম্পকে নিশ্চিত হন। উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাদশা, নলকুড়া ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী ফর্সা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত এ ব্যাপারে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি ইউডি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »