যেকোনো মূল্যে পারমাণবিক লক্ষ্য পূরণ করবেন কিম!

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যেকোনো মূল্যে উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক লক্ষ্যে পৌঁছানোর অঙ্গীকার করেছেন সে দেশের নেতা কিম জং-উন। তার লক্ষ্য যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক শক্তির সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সামরিক শক্তির ‘ভারসাম্য’ প্রতিষ্ঠা করা।

দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএর বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, পারমাণবিক লক্ষ্য পূরণে নিজের প্রতিশ্রুতির কথা দৃঢ়ভাবে জানিয়েছেন কিম। তিনি বলেন, আমেরিকাকে দেখিয়ে দিতে চাই যে, ‘নিষেধাজ্ঞা ও অবরোধের পরও কীভাবে উত্তর কোরিয়া তার পারমাণবিক মিশন শেষ করে।’

জাপানের ওপর দিয়ে সর্বশেষ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর পর কিম এই প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। কেসিএনএকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কিম আরো বলেন, উত্তর কোরিয়ার লক্ষ্য যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর সঙ্গে নিজেদের সামরিক বাহিনীর ভারসাম্য আনা, যাতে মার্কিন শাসকেরা বিকল্প হিসেবে সামরিক বাহিনী নিয়ে কথা বলার সাহস না পান।

পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার করে জাপানকে সাগরে ডুবিয়ে দেওয়ার হুমকির পরদিন শুক্রবার উত্তর কোরিয়া হুয়াসং-১২ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। ক্ষেপণাস্ত্রটি জাপানের ওপর দিয়ে প্রশান্ত মহাসাগরে গিয়ে পড়ে। আর এর পরেই এ প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন কিম।

উত্তর কোরিয়ার নেতা দাবি করেছেন, নিক্ষিপ্ত ক্ষেপণাস্ত্র নিখুঁতভাবে তার লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে। উত্তর কোরিয়ার ওপর একাধিক নিষেধাজ্ঞা দেওয়া সত্ত্বেও সে দেশের পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচিকে পরিপূর্ণতা দেওয়ারও ঘোষণা দেন তিনি।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শুক্রবার নিক্ষিপ্ত উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রটি সর্বোচ্চ ৭৭০ কিলোমিটার ওপর দিয়ে ৩ হাজার ৭০০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে। রাজধানী পিয়ংইয়ং থেকে এই ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের দৃশ্য প্রত্যক্ষ করেন উত্তর কোরিয়ার নেতা।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »