এগিয়ে থেকেও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে গেল বাংলাদেশ

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ক্রীড়া ডেস্ক: টুর্নামেন্ট থেকে অন্তত একটি পয়েন্ট নিয়ে দেশে ফিরতে চেয়েছিল বাংলাদেশ। দশজনের দল হয়ে পড়েও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের একপর্যায়ে ২-১ গোলে এগিয়েও ছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। শেষ পর্যন্ত ৩-২ গোলে হেরেই এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপ শেষ করল বাংলাদেশের মেয়েরা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয়টা দৃষ্টির দিগন্তেই ছিল। ৭৭ মিনিট পর্যন্ত ২-১ গোলে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। কিন্তু পরের ৬ মিনিটে পরপর দুটি গোলে খেয়ে বসে তারা। বাংলাদেশের পক্ষে দুটি গোল করেছেন শামসুন্নাহার ও মণিকা।

ম্যাচটা দুর্দান্ত খেলেছে মেয়েরা। সানজিদা, মারিয়াদের বল পাসিং, ড্রিবলিং ছিল চোখে পড়ার মতো। অস্ট্রেলিয়ার মতো প্রতিপক্ষের রক্ষণে বারবার আতঙ্কও ছড়িয়েছিল, কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় কৃষ্ণা রানি সরকারের লাল কার্ড দশজনের দলে পরিণত করে। ২-১-এ পিছিয়ে পড়া অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে ফেরে বাংলাদেশের গোলকিপার মাহমুদার ভুলে গোল করে। এরপর ৮২ মিনিটে বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ।

ম্যাচের ৯ মিনিটেই ১-০ গোলে পিছিয়ে পড়ে বাংলাদেশ। দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে লরা এমিলি হিউজেসের গোলে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। ৩২ মিনিটে কৃষ্ণা মাথা গরম করে লাল কার্ড পেলে ভরাডুবির শঙ্কায় পড়ে মেয়েরা। কিন্তু অদম্য মনোবলে বাংলাদেশ প্রতিরোধ গড়ে অস্ট্রেলিয়ার রক্ষণব্যূহে পাল্টা আক্রমণ চালিয়ে যেতে থাকে। ৪৫ মিনিটে বক্সের মধ্যে বাংলাদেশের স্বপ্নাকে ফেলে দেন অস্ট্রেলিয়ার ম্যাটিচ। পেনাল্টি পেয়ে যায় বাংলাদেশ। সেটি কাজে লাগান শামসুন্নাহার।

৫১ মিনিটে ২-১ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। গোল করেন মণিকা। অস্ট্রেলিয়ার গোলকিপার গ্রোভের পায়ে লেগে ফিরে আসা বল থেকে জোরালো শটে অস্ট্রেলিয়ার জালে বল জড়ান মণিকা। ৭৮ মিনিটে কুনির ক্রস স্বপ্ন ভেঙে দেয় বাংলাদেশের। কর্নার থেকে তার বাঁক খাওয়া বল ঢোকে জালে। এখানে গোলকিপার মাহমুদার দায় আছে। ৮২ মিনিটে আবারও কর্নার থেকে স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল বক্সের সামনে থেকে সোফিয়া প্লেসিংয়ে করে ৩-২ গোলে এগিয়ে নেন অস্ট্রেলিয়াকে। বাকি সময় ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ভাগ্যটা সঙ্গে ছিল না।

ম্যাচ শেষ দুর্ভাগ্যের কথাই বললেন কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। সেই সঙ্গে তিনি উচ্ছ্বসিত মেয়েদের পারফরম্যান্সে, ‘আজই বাংলাদেশ নিজেদের আসল ফুটবলটা খেলেছে। কৃষ্ণা থাকলে আমরা জিততে পারতাম। আমাদের দল দুর্দান্ত খেলেছে। ১০ জন নিয়ে খেললেও মনে হয়নি খেলোয়াড় কম ছিল। কিন্তু দুর্ভাগ্য জিততে পারলাম না।’

সবশেষে একটা আকুতিও ঝরেছে ছোটনের কণ্ঠে, ‘এই দলটি খুব প্রতিভাবান। এদের ধরে রাখতে হবে। নিয়মিত অনুশীলনটা চালিয়ে নিতে হবে। তাহলে এই দলটি কিন্তু অনেক দূর যাবে।’

নারী ফুটবলে বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে ৬ নম্বর দল অস্ট্রেলিয়া। ১০৬ নম্বর দল হয়েও ৬ নম্বরের সঙ্গে দুর্দান্ত লড়ে কোচের কথারই দারুণ প্রমাণ দিল বাংলাদেশের মেয়েরা।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »