মোবাইলের পিছনে চামচ, এবার একসঙ্গে খাওয়া এবং ফোন ঘাঁটার ব্যবস্থা

Feature Image

নিউজ ডেস্ক : আজকের কর্মব্যস্ত জীবনে সময় কোথায়? অফিস, কাজ, ব্যক্তিগত জীবনের ব্যস্ততা, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, চ্যাটিং, ইমেল। সারাক্ষণ শুধু স্মার্টফোনেই ডুবে থাকে জেনারেশন ওয়াই। মুশকিল হল এসবের মধ্যে ঘুম, স্নানধান, এমনকি খাওয়াদাওয়াও শিকেয় ওঠার মুখে। বাবা মায়েরা মাঝে মাঝেই বলছেন, কিশোর কিশোরী বা তরুণ তরুণীরা স্মার্টফোনে এতটাই ডুবে থাকছে, যে ঠিকমতো খাওয়াদাওয়াও করছে না। এই সমস্যার সমাধান আনতে এবার অভিনব স্মার্টফোনের কভার তৈরি করলেন সিঙ্গাপুরের এক ব্যক্তি।

প্রয়োজনে, অপ্রয়োজনে প্রতিনিয়ত ফোন ঘাঁটা এই জেনারেশনের স্বভাব। খাবার সময়ও নজর থাকে ফোনের দিকে। দুটি কাজ একসঙ্গে করা একটু তো সমস্যার ব্যপার বটেই। এই ‘জটিল’ সমস্যার সহজ সমাধান নিয়ে এলেন সিঙ্গাপুরের ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর সের্জি মাস্ট। ইনি একটি বিখ্যাত সংস্থার মার্কেটিং বিভাগে কাজ করেন। কী সেই সমাধান? না, তেমন কিছুই নয়। ফোনের পিছনেই ইনি একটি বিশেষ কভার লাগানোর ব্যবস্থা করেছেন। যে কভারের ভিতরে থাকবে চামচ। ফোনের পাশে থাকা সুইচ টিপলেই, চামচটি ফোনের নিচের অংশ দিয়ে নিচে নেমে আসবে। তারপর সেই চামচ দিয়েই খাবার খেতে পারবেন আপনি। একই সঙ্গে থাকবে ফোনের দিকেও নজর। মজার ব্যপার হল, একটা হাত কাজে লাগিয়েই আপনি দুটো কাজ করতে পারবেন। আবার সমস্যা হল, যতই বলা হোক খাওয়া আর ফোন ঘাটা একসঙ্গে হবে, বাস্তবে তা হচ্ছে না। খাওয়ার জন্য চামচটি মুখে তুললেই ফোনটি চোখের সামনে থেকে সরে যেতে বাধ্য।

আসলে নেটিজেনদের একাংশের দাবি, এখানে একটি প্যাঁচ আছে। যে ব্যক্তি ফোনের এই কভারটি তৈরি করেছেন তাঁর আসল উদ্দেশ্য খাওয়া আর ফোন ঘাটার ব্যবস্থা একসঙ্গে করা নয়। বরং, খাওয়ার সময় যাতে মানুষের ফোকাস অন্যদিকে না থাকে সেটাই নিশ্চিত করা। কে জানে, সের্জি মাস্ট নিজের উদ্দেশ্য মোটেই পরিষ্কার করেননি। তবে, তাঁর এই অদ্ভুত স্মার্টফোনের কভার নেটদুনিয়ায় তুফান তুলছে। ইতিমধ্যেই সিঙ্গাপুরের বাজারে এই বিশেষ কভার চলে এসেছে। পাওয়া যাচ্ছে আইফোনের বিভিন্ন মডেলের কভার।

আরো খবর »