সাহিত্যবাড়ি গুনীজন সম্মাননা পেলেন কাজী শেলী

Feature Image

আজ কুষ্টিয়ার বিখ্যাত সাহিত্য সংগঠন”সাহিত্যবাড়ি”গুনীজন সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠিত হয়ে গেল কুষ্টিয়ার পরিমল টাওয়ারের ফুড হ্যাকার রেষ্টুরেন্টে।এতে সামাজিক,সাংস্কৃতিক ও সাহিত্যে অবদান রাখার জন্য কুমারখালীর সমাজকর্মী, মমতাময়ী মা “কাজী শেলী”কে সম্মাননা প্রদান করে।উক্ত অনুষ্ঠানে আরো সম্মানিত করা হয় নব্বইদশকের বিশিষ্ট কবি,ছড়াকার “আতিক হেলাল”, সমাজকর্মী,সাংবাদিক ও লেখক সুমন মোস্তফা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষক”ইমাম মেহেদি” কে।

সাহিত্য বাড়ি সংগঠনের সভাপতি”রিতা ফারিয়া রিচির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কুমারখালী এবং বৃহত্তর কুষ্টিয়ার সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও সাংবাদিকতা বিভাগের অনেকেই। বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক সহ বিভিন্ন নারী সাংবাদিক, উদ্যোক্তা সমাজকর্মী, ছাত্র সহ সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ।অনুষ্ঠানে উপস্থিত অনেকেই বর্তমান সময়ে সাহিত্যের দর্শন, অবস্থান এবং করনীয় বিষয়ে বক্তব্য দেন।তাছাড়া সম্মননা প্রাপ্ত ব্যক্তিবর্গ নিজ নিজ বক্তব্যে নিজেদের কর্মপরিধি সম্পর্কে উপস্থিতিদের অবগত করেন।

আমাদের কুমারখালীর গর্ব মমতাময়ী মা”কাজী শেলী”তার বক্তব্যে বলেন”আমি গর্বিত কুষ্টিয়া-কুমারখালীর একজন হিসেবে পরিচয় দিতে।তার বক্তব্যে উঠে আসে সাংস্কৃতিক জনপদ কুষ্টিয়ার কুমারখালীর আরেক গুনীজন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সফল নাট্যকার এবং লেখক”লিটন আব্বাস”এর প্রতি কৃতজ্ঞতা ।তিনি বলেন”লিটন আব্বাস”আমার গুরু।বৃহত্তর কুষ্টিয়ার সকল গুনীজনদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।সাহিত্যবাড়ির সাফল্য কামনা করেন এবং ধন্যবাদ জানান একসাথে কবি,সাহিত্যিক, গবেষক এবং সমাজকর্মী কে একত্রিত করা এবং সম্মানিত করায়।

আরো খবর »