নীলাকে শহীদ মিনারের অন্যতম রূপকার বর্ণনার প্রতিবাদে কুমারখালীতে সংবাদ সম্মেলন

Feature Image

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ঃ এনটিভিতে ‘স্বাধীনতা যুদ্ধের নীলা এখন নারী অধিকার রক্ষার কারিগর’ শিরোনামে প্রচারিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমিতি,৭১ এর ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি ও ৭১ প্রজন্ম শাখার নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমিতির কার্যালয়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠ করেন মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমিতির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এটিএম আবুল মনছুর মজনু।

লিখিত বিজ্ঞপ্তি হুবহু তুলে ধরা হলোঃ গত ১৯ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিঃ তারিখ বৃহস্পতিবার এনটিভিতে ‘স্বাধীনতা যুদ্ধে নীলা এখন নারী অধিকার রক্ষার কারিগর’ শিরোনামে প্রচারিত সংবাদে রওশন আরা বেগম নীলাকে শহীদ মিনারের অন্যতম রূপকার হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে যা সত্যের অপলাপ ও বিভ্রান্তিকর।তিনি আরো জানান,রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে,তিনি ২০১৬ সালে শ্রেষ্ঠ জয়িতা হিসেবে বেগম রোকেয়া পদক পেয়েছেন।তথ্যটি সম্পূর্ণরূপে অসত্য।( উল্লেখ্য, কুষ্টিয়া জেলা থেকে একমাত্র বেগম রোকেয়া পদক প্রাপ্ত ব্যক্তি হলেন কুষ্টিয়া মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নূরজাহান মিনা।তিনি ২০১৮ খ্রিঃ এসম্মানে ভূষিত হন।

লিখিত বক্তব্যে আরো জানান,রওশন আরা বেগম নীলা মুক্তিযুদ্ধে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে অংশগ্রহন করেছেন বলে রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে।এটিও অসত্য তথ্য।কুমারখালী মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অনুসন্ধান করলে তার অবদানের কোন প্রত্যক্ষ ও দলিলিক প্রমাণ পাওয়া যায় না।

স্বাধীনতার ৪৮ বছর পরও মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস বিকৃতির যে অপপ্রয়াস,অসত্য ও বিভ্রান্তিকর তথ্য উপস্থানের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে বিপথে চালিত করার যে অপচেষ্টা এই রিপোর্টের মাধ্যমে করা হয়েছে আমরা তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জ্ঞাপন করছি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মহিলা পরিষদের সভাপতি মমতাজ বেগম,বীরমুক্তিযোদ্ধা চাঁদ আলী ও সোলাইমান,সাংবাদিক বৃন্দ সহ প্রমুখ।

আরো খবর »