কুমারখালীতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি পরিচিতি সভা।।সংঘর্ষের আশঙ্খা

Feature Image

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ও নেতাকর্মীদের নিয়ে উদ্বিগ্ন দলটির শীর্ষস্থানীয় নেতাকর্মীরা।একের পর পর আন্দোলন, সংগ্রাম, বিক্ষোভ, সংঘর্ষ ও নানা জটিলতায় জড়াচ্ছে তারা।নাটকীয়ভাবে কমিটি ঘোষনার পর পরই অভিযোগের ভিত্তিতে কাটছাঁট দিয়ে পুনরায় কয়েক দফা কমিটি গঠন করা হলেও যেন এর রেস কাটছেনা।

প্রচার মাইক,দলটির স্থানীয় সেতুবৃন্দ ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়,আজ শুক্রবার বিকাল ৩ টায় উপজেলার যদুবয়রা ইউনিয়ের জয়বাংলা বাজার প্রাঙ্গনে বর্তমান ও পদবঞ্চিত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা একই সময় একই স্থানে পাল্টাপাল্টি পরিচিতি সভার আয়োজন করেছে।এতে চলমান কমিটিতে যদুবয়রা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন যদুবয়রা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটর সদস্য মিজানুর রহমান মিজান।

অপরদিকে পদবঞ্চিতদের সভায় যদুবয়রা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য,উপজেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক শরিফুল আলম।এদিকে একই সময় একই স্থানে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি পরিচিতি সভায় ব্যাপক সংঘর্ষের আশঙ্খা করেছেন দলটির শীর্ষস্থানীয় নেতাকর্মীরা।

এবিষয়ে কুমারখালী উপজেলা ছাত্রলীগের ২ নং সহ-সভাপতি হাফিজ মাহমুদ জানান,জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক স্বাক্ষরিত একটি কমিটি উপহার দিয়েছে কিছুদিন আগে। সেই কমিটির সাথে যদুবয়রা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের মতবিনিময় সভা হবে। কয়েকদিন ধরে আমাদের প্রোগামের আলোচনা চলছে। নেতৃবৃন্দের দাওয়াত দিয়েছি, দিনব্যাপী মাইকিং হয়েছে। একটি মহল প্রোগামকে বানচাল করার জন্য পাল্টাপাল্টি সভার প্রচার করছে।

কুমারখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক রাসেল হোসেন মুঠোফোনে জানান, আজ বিকাল ৩ টায় যদুবয়রা জয়বাংলা বাজারে আমাদের পরিচিতি সভা।মাইকিং হয়েছে।আমাদের অনুষ্ঠানে বাঁধা সৃষ্টি করার জন্য অপজিট পার্টি পায়তারা করছে।

এবিষয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য,উপজেলা আওয়ামীলীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক ও যদুবয়রা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল আলম জানান,শুনেছি জয়বাংলা বাজারে ছাত্রলীগের পরিচিতি সভা।তবে একই সাথে দুই গ্রুপের কি না,তা আমার জানা নেই।তিনি আরো জানান,এক স্থানে দুই গ্রুপের অনুষ্ঠান হলে আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ব্যাপক সংঘর্ষ হতে পারে বলে ধারনা করছেন যদুবয়রা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক ডাঃ মোঃ আব্দুর রশিদ।

এবিষয়ে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল আলীম মুঠোফোনে জানান,বিষয়টি আমাদের নলেজে আছে।উভয় পক্ষের সাথে কথাবার্তা চলছে।আইনশৃঙ্খা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরো খবর »