গণপরিবহনে মাস্ক বাধ্যতামূলক করল স্পেন

Feature Image

নিউজ ডেস্ক : করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে জারি করা লকডাউন শিথিল হলেও গণপরিবহনে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করেছে স্পেন সরকার। সোমবার (৪ মে) থেকে দেশটিতে এ নিয়ম কার্যকর হবে।


স্প্যানিশ প্রধানমন্ত্রী পেড্রো সানচেজ জানান, ৬০ লাখ মাস্ক বিতরণ করবে পরিবহন খাতে এবং ৭০ লাখ মাস্ক দেয়া হবে স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে।
সানচেজ জানান, লকডাউনের কারণে স্পেনের নাগরিকরা যে আত্মত্যাগ করেছেন সেটির পুরস্কার এখন পাচ্ছেন। সরকার করোনা মহামারিতে সৃষ্ট আর্থিক সংকট মোকাবিলায় আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষকে ১৬ বিলিয়ন ইউরোর তহবিল অনুমোদন দেবে।
এর আগে প্রধানমন্ত্রী পেড্রো সানচেজ চার ধাপের পরিকল্পনা ঘোষণা করেন। যে পরিকল্পনাকে তিনি নতুন স্বাভাবিকতায় ফেরা হিসেবে উল্লেখ করেছেন। ওই সময় তিনি জানান, জুনের শেষদিকে দেশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে পারে।


গত সপ্তাহেও ইউরোপের করোনার প্রাদুর্ভাবে সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত দেশগুলোর একটি ছিল স্পেন। মার্চ মাস থেকেই জারি করা হয় কঠোর লকডাউন। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বেশিরভাগ মানুষ বন্দি হয়ে পড়েন ঘরের ভেতরেই।
আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসায় এবং হাসপাতালগুলোতে ভিড় কমতে শুরু করায় সরকার দেশ পুনরায় সচল করা এবং অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে মনোযোগ দিয়েছে। গত সপ্তাহে ১৪ বছরের কম বয়সী শিশুদের দিনে এক ঘণ্টার জন্য বাইরে বের হওয়ার অনুমতি দেয়া হয়।
বাইরে মানুষের ভিড় কমাতে সরকার শিফট ব্যবস্থা চালু করেছে। এর মাধ্যমে বিভিন্ন বয়সের মানুষ ভিন্ন সময়ে বাইরে বের হওয়ার অনুমতি পাচ্ছেন।


আজ থেকে খুলছে সেলুন। তবে বার ও রেস্তোরাঁ বন্ধ থাকবে আরও এক সপ্তাহের জন্য।
সোমবার স্পেনে আক্রান্ত ২ লাখ ৪৭ হাজার ১২২ জন, মারা গেছেন ২৫ হাজার ২৬৪ এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৮ হাজার ৫৫৮ জন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়ার্ল্ডমিটারে এ সংখ্যা নিশ্চিত করা হয়েছে।

এদিকে লকডাউনের কারণে দেশটি অর্থনীতিতে বিপর্যয় নেমেছে। ২০২০ সালে দেশটির জিডিপি ৯.২ শতাংশ হতে পারে।
সূত্র: বিবিসি

আরো খবর »