লকডাউন শিথিলে আক্রান্ত ও মৃত্যু দুটিই বেড়েছে যুক্তরাষ্ট্রে

Feature Image

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত সপ্তাহে শেষ হওয়া ‘ঘরে থাকা’র নির্দেশের সময়সীমা আর বাড়াননি। বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য নিজের সিদ্ধান্ত লকডাউন উঠিয়ে নিতে পারবে বলেও ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি। সে অনুযায়ী প্রায় ৩০টি অঙ্গরাজ্যে লকডাউন শিথিল করা হয়। এরপর এসব অঙ্গরাজ্য করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু দুটিই বেড়েছে।

লকডাউন শিথিল করা অধিকাংশ অঙ্গরাজ্যেই গত তিনদিনের মৃত্যু এবং সংক্রমণের হার বেড়েছে বলে স্বাস্থ্য দফতরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তারও আরও বলেছেন, করোনায় মারা যাওয়া নিয়ে আগে যে ধারণা ছিল, তা ঠিক ছিল না। এখন মনে হচ্ছে এটি ভয়ঙ্কর এবং আগস্ট নাগাদ লাখ খানেক আমেরিকানের প্রাণহানী হতে পারে।
উল্লেখ্য, গত সপ্তাহেই ট্রাম্প বলেছিলেন, করোনায় বড়জোর ৬০ থেকে ৬৫ হাজার আমেরিকানের মৃত্যু হতে পারে। গত ১০/১২ দিনে বিভিন্ন স্টেটে লকডাউন উঠিয়ে নেয়ার দাবিতে যে বিক্ষোভ হয়েছে, সেগুলোতেও প্রকাশ্যে সমর্থন দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এপ্রিলের শেষে তিনি ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানসহ স্কুল-কলেজ, পার্ক খুলে দেয়ার পক্ষে কথা বলেছেন।

এদিকে, গত কয়েকদিনে যে ৩০ স্টেটে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে, সেগুলোর কোথাও সিডিসির নির্দেশ অনুযায়ী মাস্ক ব্যবহার দূরের কথা সামাজিক দূরত্বও বজায় রেখে কেউ চলাফেরা করছে না।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রে আজ সোমবার পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬৮ হাজার ৫৯৮ জনের এবং সংক্রমিত হয়েছে ১১ লাখ ৮৮ হাজার ১২২ জন।

আরো খবর »