‘ভুয়া করোনা সনদ নিয়ে বাংলাদেশিরা ইতালিতে প্রবেশ করেনি’

Feature Image

প্রযুক্তির প্রয়োগ যত বাড়বে, কাজ তত সহজ হবে। দুর্নীতি কমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বাড়বে। গ্রাহকসেবা নিশ্চিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

প্রতিমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার তাঁর বাসভবন থেকে ইআরপি সলিউশনের ওপর ভার্চুয়াল মিটিংয়ে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্ল্যানিং (ইআরপি) বাস্তবায়নে আরো আন্তরিক হওয়া প্রয়োজন। ইআরপি এমনভাবে করা দরকার, যাতে সার্বিক অবস্থা সমন্বিত হয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য হাতের কাছে ড্যাশবোর্ডে পাওয়া যায়। ইআরপি বাস্তবায়নে দৃশ্যমান অগ্রগতি গ্রাহকদের সঙ্গে আস্থার সম্পর্ক আরো দৃঢ় করবে।

মাইক্রোসফট, কাম্পিউটার সার্ভিস, টেকনো হেভেন ও টেকভিশন- এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিভাগ ইআরপি বাস্তবায়ন করছে। ইতিমধ্যে এইচ আর (হিউম্যান রিসোর্স), ফিক্সড অ্যাসেট, অ্যাকাউন্টস এবং ফিন্যান্স সিস্টেম সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করে ডাটাবেইস সংযোজন করা হয়েছে। প্রযুক্তি ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি, রিপোর্টিং, ভ্যারিয়েবল অ্যাসেট, ইনভেন্টরি ম্যানেজমেন্ট ইনকর্পোরেট করা নিয়ে আলোচনা করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী এ সময় আরো বলেন, বিদ্যুৎ খাত দেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সেবা খাত। ৯৭ শতাংশ মানুষ এখন বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায়। এত বড় সেবা খাত সঠিকভাবে পরিচালনা করতে দ্রুত ডিজিটাল সেবা দিতে হবে। বিভাগের সব দপ্তর বা প্রতিষ্ঠান ইআরপির আওতায় খুব দ্রুত আসা প্রয়োজন। ইআরপি সিস্টেম চালু হলে কেন্দ্রীয়ভাবেই সব মনিটর করা যাবে। গ্রাহকের সেবার মানও বৃদ্ধি পাবে।

ভার্চুয়াল এ সভায় অন্যান্যের মাঝে বিদ্যুৎ সচিব ড. সুলতান আহমেদ, পিডিবির চেয়ারম্যান মো. বেলায়েত হোসেন, আরইবির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অব.) ও পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন উপস্থিত ছিলেন।

আরো খবর »