‘শরীরে কাদা মাখলেই কৃষকদের সম্মান জানানো যায় না’

Feature Image

বেশ কয়েক বছর পর ঈদে ভক্তদের ছবি উপহার দিতে পারেননি ‘ভাইজান’ খ্যাত বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। বড়পর্দায় আবির্ভাব না ঘটলেও লকডাউনে মধ্যে নানা কারণে শিরোনামে রয়েছেন তিনি। কখনো করোনা আবহে দুস্থদের পাশে দাঁড়িয়ে অনুরাগীদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন, তো কখনো অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর সমালোচনায় বিদ্ধ হয়েছে। এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর কয়েকটি পোস্ট নিয়ে ফের সমালোচনায় মুখ নেটিজেনরা।

দেশজুড়ে লকডাউনের মধ্যেও যিনি কখনো গায়ক আবার কখনো নায়ক হয়ে উঠছেন। কিন্তু এবার তিনি ধরা দিয়েছেন কৃষকের ভূমিকায়! না, তাঁর পরবর্তী কোনো ছবির চরিত্র হিসেবে নয়, একেবারে রিয়েল লাইফে খেতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন, ধান কাটছেন, কর্দমাক্ত অবস্থায় খেতে বসে রয়েছেন। এমন নানা পোজে ছবি পোস্ট করেছেন ভাইজান। আর সঙ্গে কৃষকদের প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। তারাই মানুষের মুখে অন্ন তুলে দেওয়ার প্রাথমিক কাজটা করেন। আর সে কাজ যে কতখানি কষ্টকর, সেটাই যেন নিজে অনুভব করতে পেরেছেন সালমান। তাঁর পোস্ট অন্তত সে কথাই বলছে।

দিন কয়েক আগে একটি পোস্টে লাল বাহাদুর শাস্ত্রীর ‘জয় জওয়ান, জয় কিষাণ’ বাণী শোনা গিয়েছিল সালমানের মুখে। সম্প্রতি আরেকটি পোস্টেও কৃষকদের সম্মান জানিয়েছেন তিনি। এমন পোস্ট তাঁর অনুরাগীদের মনে ধরলেও এর জন্য কম ট্রোলড হচ্ছেন না ভাইজান। বিশেষ করে সুশান্তের ভক্তরা তাঁর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। অনেকেই লিখেছেন, ভাল সাজার ‘নাটক’ করেন সালমান। অনেকেই তাঁর এই ‘মেকি’ চেহারা মেনে নিতে পারছেন না। লিখেছেন, ‘সুশান্ত কখনো শো-অফ করতেন না আপনার মতো। এটাই পার্থক্য আপনার আর ওর মধ্যে।’

অনেকের আবার কটাক্ষ, যাঁরা ফুটপাতে শুয়ে থাকে, তাদেরও সম্মান জানান। একদল নেটিজেন আবার সালমানকে কার্যত বয়কটেরও ডাক দিয়েছেন। দাবাং খান যে সমস্ত প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপন করেন, সেসব জিনিস না কেনার আহ্বান জানিয়েছেন তারা। অন্য একজন বলছেন, ‘শরীরে কাদা মাখলেই কৃষকদের সম্মান জানানো যায় না।’

সবমিলিয়ে কাদামাখা শরীরে কৃষকদের সম্মান জানাতে গিয়ে বিপরীত ফলই পেয়েছেন ভাইজান। নেটদুনিয়ার রোষের মুখে এবার সালমান কোনো প্রতিক্রিয়া দেন কি না, সেটাই দেখার।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।

আরো খবর »