বাতিল হলো সাহেদের অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড

Feature Image

করোনা পরীক্ষা ও চিকিৎসা নিয়ে প্রতারণাসহ নানা অভিযোগে গ্রেপ্তার রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদের অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড বাতিল করেছে সরকার। একটি পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক হিসেবে এই কার্ড নিয়েছিলেন তিনি।

প্রধান তথ্য কর্মকর্তা সুরথ কুমার সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, প্রতারণামূলক কাজের জন্য কেউ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ধরা পড়লে অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড বাতিল হয়ে যাবে। সেই হিসেবে তার কার্ডটি বাতিল করা হয়েছে।

জানা গেছে, দৈনিক নতুন কাগজ নামে একটি পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক হিসেবে অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড নেন সাহেদ। গত বছরের ৩ ডিসেম্বর তার কার্ডটি ইস্যু করে তথ্য অধিদপ্তর। কার্ডটির নম্বর ৬৮৪৫। চলতি বছরের ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত এর মেয়াদ ছিল।

সচিবালয়ে প্রবেশের জন্য অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড পাওয়ায় সাহেদকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা হয়।

গত বুধবার (১৫ জুলাই) সকালে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার শাখরা কোমরপুর বেইলি ব্রিজের পাশ থেকে বোরকা পরা অবস্থায় সাহেদকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে একটি অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

এর আগে করোনা রোগীদের চিকিৎসার নামে প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগে গত সোমবার (৬ জুলাই) রাতে রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে র‍্যাব। এতে করোনার সনদ দিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা ও অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার প্রমাণ মেলে। অন্তত ছয় হাজার ভুয়া করোনা পরীক্ষার সনদ পাওয়ার প্রমাণ পাওয়া যায় অভিযানে।

পরদিন মঙ্গলবার রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। মামলায় প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মো. সাহেদসহ ১৭ জনকে আসামি করা হয়।

আরো খবর »