উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ, প্রধান শিক্ষক আটক

Feature Image

ছাত্রছাত্রীদের উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ছাতিয়ানতলী এস এম নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শক্ষিক আব্দুল হামিদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করছে পুলিশ। এদিকে ওই শিক্ষককে অপসারণের দাবিতে স্কুলের সামনে রাস্তায় মানববন্ধন করছে শিক্ষার্থীরা।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হাফিজুর রহমান জানান সোমবার দুপুরে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এই স্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র ইউনুস আলীর বাবা হামিদুল ইসলাম উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এই স্কুলের ছাত্র হামিদুল ইসলাম, আল-আমিন ও মুকুল হোসনে সহ তাদের অভভিাবকরা অভিযোগ করে জানান ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল হামিদ কিছুদিন আগে বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের ব্যবহৃত মোবাইলের সিম কার্ড নিজ হেফাজতে নিয়ে উপবৃত্তির টাকা উত্তোলন করেন। পরে কোনো কোনো শিক্ষার্থীর বাড়ি বাড়ি গিয়ে ২৭০০ টাকার স্থলে ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা দিয়ে এসেছেন। বাকি টাকা নিজে আত্মসাৎ করেছেন।

এছাড়াও অনেক শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির পুরো টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এদিকে সোমবার সকালে শিক্ষার্থীরা স্কুলের সামনে সিরাজগঞ্জ – মুলিবাড়ি আঞ্চলিক সড়কে মানববন্ধন করেছে।

বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আব্দুল কাদের শেখ জানান ২০ বছর পর বিদ্যালয়টি এমপিওভুক্ত হয়েছে তাই প্রধান শিক্ষকের পদ পাওয়ার জন্য দুটি গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক উপবৃত্তির টাকা উত্তোলন করে শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছিলেন। কিন্তু বন্যার কারণে সেটা আর সম্ভব হয়নি। এই সুযোগে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজমি আহম্মদে জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে তিনি জানান প্রধান শিক্ষকের পদ দিয়ে স্কুলের দুটি গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে।

আরো খবর »