প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৫ লাখ টাকা দিল বিসিএস পঞ্চদশ প্রশাসন ব্যাচ

Feature Image

বন্যা এবং করোনা উপলক্ষে ঈদের বোনাসের একটি অংশ প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলে সম্মিলিতভাবে প্রদান করেছে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের পঞ্চদশ প্রশাসন অ্যাসোসিয়েশন।

গতকাল রবিবার (২৬ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউসের হাতে পাঁচ লাখ টাকার চেক তুলে দেন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব শফিউল আজিম। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে তাঁর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউস পঞ্চদশ ব্যাচকে সাধারণ মানুষের কল্যাণে আর্থিক সহযোগিতায় এগিয়ে আসার জন্য ধন্যবাদ জানান।

চেক হস্তান্তরের সময় পঞ্চদশ ব্যাচের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেডের (বিএসএল) সচিব নাজমুছ সাদাত সেলিম, কোষাধ্যক্ষ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব আবুল হাসনাত হুমায়ুন কবীর, একই ব্যাচের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক জুবাইদা নাসরীন ও মো. সারোয়ার আলম উপস্থিত ছিলেন।

বিসিএস প্রশাসনের পঞ্চদশ ব্যাচের সভাপতি শফিউল আজিম কালের কণ্ঠকে বলেন, প্রশাসন ব্যাচগুলোর মধ্যে আমরা খুবই ছোট ব্যাচ। করোনা এবং বন্যার বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা বিবেকের তাড়নায় কিছু করতে চাচ্ছিলাম। কিন্তু আমাদের ব্যাচের আকার ছোট হওয়ায় বড় করে উদ্যোগ নেওয়ার সুযোগও নেই। তিনি বলেন, তারপরও ব্যাচের বিভিন্নজন নানান উপায়ে উদ্যোগ নেওয়ার প্রস্তাব দিচ্ছিলেন। নিজেরা কোথায়ও ত্রাণ দিতে গেলে বিভিন্ন ধরণের সমস্যা তৈরি হয়। তাছাড়া করোনা সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা বড় চ্যালেঞ্জ। তাই সবশেষে আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে চেক জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। এখান থেকে সারা দেশের মানুষের জন্য বহুমুখী উদ্যোগ নেওয়া হয়।

সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনা এবং বন্যার পরিপ্রেক্ষিতে পঞ্চদশ ব্যাচই প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলে প্রথম অনুদানের চেক দিয়েছে। এ ব্যাচে প্রায় ১০০ জনের মতো কর্মকর্তা আছেন। বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের একটি ব্যাচের এমন উদ্যোগের বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের প্রশংসা কুড়িয়েছে।

এদিকে প্রশাসনসহ বিসিএসের বিভিন্ন ব্যাচভিত্তিক অ্যাসোসিয়েশনগুলো বন্যা ও করোনা উপলক্ষে নানা উদ্যোগ নিয়েছে। সামনের দিনেও তাদের এমন উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

আরো খবর »