কওমি মাদরাসাসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবি চরমোনাই পীরের

Feature Image

স্বাস্থ্যবিধি মেনে দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের সব কওমি মাদরাসাসহ স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম। আজ মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে চরমোনাই পীর বলেন, দেশের সবকিছুই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে আসছে। অফিস-আদালত, হাট-বাজার, কল-কারখানা, ব্যাংক-বীমা সবই স্বাভাবিকভাবে চলছে। এ ক্ষেত্রে কওমি মাদরাসার কিতাব বিভাগসহ স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসও খুলে দেয়ার ব্যবস্থা সরকারকে করতে হবে। দীর্ঘ দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ছাত্র-ছাত্রীরা অপুরণীয় ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। এমতাবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার শর্তে কওবিম মাদরাসাসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে পড়ালেখার স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে সরকারকে কার্যকরী উদ্যোগ নিতে হবে।

মুফতি রেজাউল করীম বলেন, সরকার যদি দ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে না দেয় তাহলে দেশের শিক্ষার্থীদের একটি বড় অংশ শিক্ষাধারা থেকে পুরুপুরি ঝরে যেতে পারে, অনেকে শিক্ষার্থী বিপথগামী হতে পারে। যা দেশের ভবিষ্যতের জন্যে অপুরনীয় ক্ষতির কারণ হবে।

তিনি আরো বলেন, ইতিমধ্যে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই কোরআন-হাদিস চর্চার কেন্দ্রস্থল কওমি মাদরাসাগুলো পরিচালনার ব্যাপারে দেশের শীর্ষ ওলামায়ে কেরাম সরকারকে আশ্বস্ত করেছেন। করোনা মহামারির কারণে দেশের প্রায় ২২ হাজার কওমি মাদরাসার ২৫ লক্ষাধিক শিক্ষার্থী গত শিক্ষাবর্ষের বার্ষিক পরীক্ষা দিতে পারেনি। ফলে কওমিব ছাত্র-ছাত্রীরা সীমাহীন ক্ষতির মুখে পড়ে। এমতাবস্থায় সকল শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যত রক্ষায় অবিলম্বে সবধরণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া জরুরি। আশা করি সরকার বিষয়টি যথাযথ গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করবে।

আরো খবর »