এক বছরের চুক্তিতে চেলসিতে সিলভা

Feature Image

বয়সটাই থিয়োগা সিলভার বাধা। তা না হলে, সিলভাকে দলে নিতে ঝাপিয়ে পড়তো শীর্ষ ক্লাবগুলো। ৩৫ বছর বয়সে সর্বোচ্চ পর্যায়ের ফুটবল চালিয়ে যাওয়া সহজ ব্যাপার নয়। ইউরোপের শীর্ষ পর্যায়ের ক্লাবে খেলা আরও কঠিন। তাছাড়া পিএসজিই কি ছাড়তো তাকে! কিন্তু নামটা থিয়াগো সিলভা বলেই চেলসি তার সঙ্গে চুক্তি করেছে। ব্রাজিল সেন্ট্রাল ব্যাককে এক বছরের জন্য দলে নিয়েছেন ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডরা। পরে আরও এক বছর চুক্তি বাড়ানোর সুযোগ আছে।

থিয়াগো সিলভা চলতি মৌসুমেও পিএসজির হয়ে অসাধারণ খেলেছেন। ডিফেন্ডারদের মধ্যে ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগের ফুটবলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সফল পাস দিয়েছেন তিনি। বাতাসের বলে তিনি ছিলেন দুর্দান্ত। বয়স হলেও সিলভা বিশ্বের সেরা ডিফেন্ডারদের একজন চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালেও তা দেখিয়েছেন তিনি। তবে পিএসজি নতুন পরিকল্পনার চিন্তায় তার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেনি।

সিলভা তার ক্যারিয়ারে শীর্ষ পর্যায়ের ক্লাবের মধ্যে এসি মিলানে খেলেছেন তিন মৌসুম। এরপর পিএসজিতে তিনি কাটিয়েছেন আট মৌসুম। প্যারিসের দলটির কিংবদন্তি তিনি। আট মৌসুমে জিতেছেন সাতটি লিগ শিরোপা। সবমিলিয়ে খেলেছেন ৩১৫ ম্যাচ। মিলান-পিএসজির আগে ফ্লুমিনেন্সে তিন মৌসুম খেলেছেন এই ডিফেন্ডার। সিলভার হাতে ইউরোপের অন্য কিছু ক্লাবের প্রস্তাব ছিল। কিন্তু এক বছরের চুক্তি হওয়া স্বত্বেও তিনি চেলসিতে গেছেন ব্রাজিলের হয়ে ২০২২ বিশ্বকাপে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখতে।

থিয়াগোর সঙ্গে চুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে চেলসির পরিচালক মারিনা গ্রানোভেস্কিয়া জানিয়েছেন, সিলভার মতো বিশ্বমানের প্রমাণিত এক ডিফেন্ডারকে দলে নিতে পেরে তারা উচ্ছ্বসিত। দীর্ঘদিন শীর্ষ পর্যায়ের ফুটবল খেলায় তার অভিজ্ঞতা এবং সামর্থ্যে তাদের কোন সংশয় নেই। থিয়াগো এখনও দারুণ ফিট। তাকে নিয়ে চেলসি তাই আরও কিছু ট্রফি জিততে পারবে বলে আশা চেলসির এই কর্মকর্তার।

আরো খবর »