বঙ্গবন্ধুর লেখা বইগুলো ১২টি ভাষায় অনূদিত

Feature Image

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধু রচিত গ্রন্থসমূহ ইতোমধ্যে বিশ্বের ১২টি ভাষায় অনুবাদ হয়েছে। সারাবিশ্বে বর্তমানে বাংলাদেশের মোট ৭৭টি মিশন রয়েছে। বঙ্গবন্ধু রচিত গ্রন্থ ৩টি বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট মিশনসমূহকে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী। তিনি এ ব্যাপারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতাও কামনা করেন।

প্রতিমন্ত্রী আজ সোমবার সকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘২৯তম নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলা-২০২০’ এর ওয়েবসাইট উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব তথ্য জানান। প্রতিমন্ত্রী সচিবালয়ের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নিজ অফিসকক্ষ হতে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর, বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি ফরিদ আহমেদ, বিশিষ্ট লেখক ও সাংবাদিক আনিসুল হক এবং লেখক ফারুক হোসেন।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন ২৯তম নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলা আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. জিয়াউদ্দীন আহ্বায়ক। সমাপনী বক্তৃতা করেন মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কথাসাহিত্যিক ফেরদৌস সাজেদীন। শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও বইমেলার সমন্বয়কারী বিশ্বজিত সাহা। ওয়েবসাইট প্রদর্শন করেন মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের সদস্য মুরাদ আকাশ।

উল্লেখ্য, ‘যত বই তত প্রাণ’ স্লোগানকে সামনে রেখে বইমেলাটি আগামী ১৮ হতে ২৭ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হবে। ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সারা বিশ্ব থেকে এই বইমেলা দেখা যাবে।

আরো খবর »