নওগাঁয় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যায় মহিলা পরিষদের গভীর উদ্বেগ

Feature Image

নওগাঁ শহরের খাস-নওগাঁ মহল্লায় বখাটে কর্তৃক উত্ত্যক্ত, মারধর ও শ্লীলতাহানির ঘটনা সইতে না পেরে ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ।

আজ সোমবার পরিষদের পক্ষ থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে এতথ্য জানানো হয়। এ সময় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও জানানো হয়।

এ সময় বর্তমান অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য যৌন নিপীড়ন, উত্ত্যক্তকরণ বন্ধে হাইকোর্ট বিভাগের রায় বাস্তবায়ন এবং রায়ের আলোকে পৃথক আইন তৈরির বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও সরকারের নিকট দাবি জানানো হয়।

উল্লেখ্য, নওগাঁ পিএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে দীর্ঘদিন ধরে একই এলাকার বাসিন্দা ও নওগাঁ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের কম্পিউটার বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রিহান ও সৌরভ তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে কয়েক দফা বৈঠকে রিহানের পরিবার তাদের ছেলেরা স্কুলছাত্রীকে আর উত্ত্যক্ত করবে না বলে আশস্ত করে। গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ওই স্কুলছাত্রী বাড়ির পাশের এক বান্ধবীর বাড়িতে যাওয়ার জন্য বের হলে এ সময় রিহান ও সৌরভ তাকে জোর করে মোটরসাইকেলে তুলে নির্জন জায়গায় নিয়ে স্কুলছাত্রীকে মারধর ও শ্নীলতাহানি করে। পরের দিন বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে অপমান সহ্য করতে না পেরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ওই স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করে।

এ ঘটনায় নিহত কিশোরীর বাবা মারধর, শ্লীলতাহানি ও আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে বখাটে রিহান ইসলাম (২৩) ও সৌরভের (২২) বিরুদ্ধে নওগাঁ সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আরো খবর »