ধর্ষকদের দায় নেবে না ছাত্রলীগ : জয়

Feature Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্তদের ৪৮ ঘণ্টার ভেতরে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে ছাত্রলীগ। আজ রবিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে এক সমাবেশে এই দাবি জানান সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীসহ দেশের বিভিন্ন স্থান সংগঠিত ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে এই সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। এতে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ কেন্দ্রীয় ও ঢাবি ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের বিচার না পেয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরবে, তা হতে পারে না। এর বিচার হতে হবে। ফেসবুকে লাইভ করে হুমকি দেওয়ার কথা তো আগে কখনও শুনিনি। অথচ নুর সেটা করেছে।

নূর ডাকসুর ভিপিদের মর্যাদাহানী করেছে মন্তব্য করে জয় বলেন, এই নুর সবাইকে ভুল বুঝিয়ে নিজের স্বার্থ হাসিল করেছে। নুরু গংরা শিবিরদের নিয়ে ছাত্র অধিকার পরিষদ গঠন করেছে, কিসের ছাত্র অধিকার পরিষদ? আপনারা তো এখন দেখছি ধর্ষক অধিকার পরিষদ।

সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনা উল্লেখ করে জয় বলেন, ‘ধর্ষকের কোনো দল নেই। তারা কুলাঙ্গার। আপন ভাই ভাইকেও খুন করে। তার দায়ও কি ছাত্রলীগ নেবে?’

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ছাত্রীর ধর্ষণের অভিযুক্তের পক্ষে অবস্থান নেওয়ায়, ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর ও ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জীব চন্দ্র দাস।

সমাবেশে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

আরো খবর »